১ আশ্বিন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: খারাপ সিগন্যালের সমস্যা এবার হয়তো পিছু ছাড়বে। কারণ খুব তাড়াতাড়িই নেটওয়ার্ক ছাড়াই করা যাবে ফোন। তা সে ল্যান্ডলাইনই হোক বা মোবাইলে। ফোন করার জন্য শুধু লাগবে ওয়াই-ফাই কানেকশন। মঙ্গলবার সরকারি তরফে একথা ঘোষণা করা হয়েছে।

[ সম্পর্ক গড়তে আসরে ফেসবুক, এবার আসছে নতুন ডেটিং অ্যাপ ]

টেলিকম অপারেটর ও টেলিফোনের লাইসেন্সপ্রাপ্ত অন্য কোম্পানিগুলো এর জন্য একটি নতুন মোবাইল নম্বর দেবে। সেই নম্বর থেকেই নেটওয়ার্ক তো বটেই। সিমকার্ড ছাড়াও করা যাবে ফোন। তবে এর জন্য একটি টেলিফোনিক অ্যাপ ডাউনলোড করতে হবে। টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি অফ ইন্ডিয়া (TRAI) গত অক্টোবরে এমন একটি প্রোপোজাল দিয়েছিল। কল ড্রপ নিয়ে বারবার অভিযোগ জানিয়েছেন কাস্টমাররা। সেই সমস্যা সমাধান করতেই এই পদক্ষেপ আনার কথা ভাবা হয়েছিল বলে জানানো হয়েছে।

ইন্টার-মিনিস্টেরিয়াল টেলিকম কমিশন সেই প্রস্তাবে সিলমোহর দিয়েছে। রিলায়েন্স জিও, বিএসএনএল, এয়ারটেল ও অন্য কোম্পানিগুলির ইন্টারনেট টেলিফোনি সার্ভিসের মাধ্যমেই এই সুবিধা পাওয়া যাবে। TRAI-র এক উপদেষ্টা অরবিন্দ কুমার জানিয়েছেন, এর ফলে উপকৃত হবেন মোবাইল ব্যবহারকারীরা। কিছু কিছু বাড়ি ও বিল্ডিংয়ে টেলিফোন নেটওয়ার্ক পাওয়া যায় না। সেখানে যদি ওয়াই-ফাই কানেকশন থাকে, তাহলে গ্রাহকরা এই পরিষেবা পাবেন।

[ আইপিএল মরশুমে আকর্ষণীয় অফার নিয়ে হাজির Jio, মিলছে ৮ জিবি ফ্রি ডেটা ]

এক সরকারি আধিকারিক জানিয়েছেন, অপারেটর যদি সুযোগ দেয়, তবে কাস্টমার অ্যাপ ডাউনলোড করতে পারবে। এর জন্য গ্রাহককে একটি ১০ ডিজিটের নম্বর দেওয়া হবে। অন্য মোবাইল নম্বরগুলোর মতোই হবে সেই নম্বর। ধরা যাক কেউ এয়ারটেলের সিম ব্যবহার করে। পরে সেই একই ব্যক্তি জিও ইন্টারনেট টেলিফোনি অ্যাপ ডাউনলোড করেছেন। তবে তিনি নতুন ও আলাদা একটি নম্বর পাবেন। সেই নম্বর থেকে ব্রডব্যান্ডের মাধ্যমে সে ফোন করতে পারবেন। তবে যদি একই টেলিকম সার্ভিসের অ্যাড ডাউনলোড করা হয়, তবে নম্বর থাকবে একই।

এই পরিষেবা চালু হলে কল সাকসেস রেট বাড়বে বলে মনে করছে TRAI। বিশেষত যেসব এলাকায় নেটওয়ার্ক পাওয়া যায় না, সেখানে ব্রডব্যান্ড ব্যবহার করে ফোন করা যাবে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং