BREAKING NEWS

১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মনের মতো নিতম্ব পেতে অসাধ্য সাধন, এ কী করলেন তরুণী!

Published by: Biswadip Dey |    Posted: October 16, 2021 8:11 pm|    Updated: October 16, 2021 8:11 pm

Woman explains how she toned bum to perfection while eating 3,000 calories a day। Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ”শরীর! শরীর! তোমার মন নাই কুসুম?” বিখ্যাত বাংলা উপন্যাসের এই কটাক্ষ ভরা সংলাপ বারবার ফিরে আসে। কিন্তু শরীরকেও যে নেহাতই অবহেলা করা যায় না, সেকথা মনে হবেই সারা মুরের কীর্তির কথা জানলে। নিউজিল্যান্ডের (New Zealand) বাসিন্দা বছর চব্বিশেকের এই তরুণী মনের মতো শরীর পেতে কী না করেছেন! প্রথম ওজন ঝরিয়ে শরীরকে ছিপছিপে করেছেন। তারপর মনের মতো নিতম্ব পেতে শুরু করেছেন প্রিয় খাবার খেয়ে ওজন বাড়ানো। আর এই বাড়ানো কমানো করতে করতেই তিনি পৌঁছে গিয়েছেন নিজের ইপ্সিত লক্ষ্যে।

কেবল নিতম্ব নয়, সেই সঙ্গে উরুও যেন হয় একদম মনের মতো, সেই দিকেই লক্ষ্যই ছিল সারার। কাজটা মোটেই সহজ ছিল না। ‘ডেইলি স্টার’-এর সঙ্গে নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করে নিয়ে গিয়ে তরুণী জানাচ্ছেন, ”একই সঙ্গে পেশিকে সুগঠিত করা এবং অল্পবিস্তর মেদ জমানো বলতে গেলে অসম্ভবই। সেটা করতে হলে নবাগতের মতো করে জিমে সময় দিতে হবে।” তিনি জানিয়েছেন, এজন্য তাঁকে দৈনিক ৩ হাজার ক্যালোরির খাবার খেতে হয়েছে। কী নেই তাঁর খাদ্য তালিকায়? চিকেন পিৎজা, চিপস, বার্গার, পাস্তা- পছন্দের খাবার খেয়ে যেমন তৃপ্তি পেয়েছেন তেমনই তা সাহায্য করেছে তাঁকে পছন্দের শরীর দিতে।

[আরও পড়ুন: ফেসবুক-হোয়াটসঅ্যাপ বন্ধ হতেই পোয়াবারো পর্নহাবের, হু হু করে বেড়েছিল ইউজারের সংখ্যা]

কী করে এত মেপে মেপে ওজন বাড়ানো কমানোকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারলেন তিনি? কীভাবে সম্ভব হল এই ম্যাজিক? সারার জবাব, ”তেমন কোনও ম্যাজিক ব্যায়াম নেই যা আপনাকে নিখুঁত নিতম্ব দেবে। তবে আমার প্রিয় কিছু ব্যায়াম আমাকে খুবই সাহায্য করেছে। বিভিন্ন ধরনের বার্বেল স্কোয়াট জাতীয় ব্যায়ামেই এটা সম্ভব হয়েছে।” তবে এর সঙ্গেই তিনি জানিয়েছেন, ব্যায়াম শুরুর আগে শরীরকে ঠিকমতো গরম করে নেওয়া প্রয়োজন যাতে কোনও চোট না লাগে।

আর এই পুরো কাণ্ডটি সারা করেছেন মাত্র ২ বছরে। অথচ তাঁর শরীরের গঠন ছিল একেবারেই সাধারণ। তার উপর ওজন ঝরাতে পারলেও নিতম্ব নিখুঁত রাখা মুশকিল। কিংবা পা দু’টিও সেই অর্থে বেশি ছিপছিপে লাগবে। এই শুষ্কং কাষ্ঠং শরীরকে লাবণ্য দিতেই প্রয়োজন মেদ। আর সেই দু’টির মধ্যে অনবদ্য ব্যালেন্স করতে পেরেছেন বলেই সারার শরীর হয়ে উঠেছে বিকিনি মডেলদের মতোই চিত্তাকর্ষক।

[আরও পড়ুন: কলকাতার ৮৫ শতাংশ মায়েরা চাইছেন ছেলেমেয়েরা প্রেম করেই বিয়ে করুক, বলছে সমীক্ষা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে