×

৪ চৈত্র  ১৪২৫  বুধবার ২০ মার্চ ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্মার্টফোনের বাজারে অ্যাপল ও স্যামসাংয়ের প্রতিদ্বন্দ্বিতা কারও অজানা নয়। সাতবছর আগে যে লড়াই শুরু হয়েছিল এতদিনে হল তার সমাধান। আদালতের নির্দেশে শাস্তির মুখে পড়তে হল স্যামসাং-কে। আর শাস্তিস্বরূপ অ্যাপলকে তাদের দিতে হবে বড়সড় ক্ষতিপূরণ।

[অপছন্দের সিনিয়রের সঙ্গে কাজ করে ক্লান্ত? মাথা ঠান্ডা রাখুন এই পাঁচ উপায়ে]

অ্যাপল আর আইফোন যেন সমার্থক শব্দ। বিশ্ববাজারে আইফোনের মতো অত্যাধুনিক স্মার্টফোন এনে সকলকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিল এই মার্কিন সংস্থা। পিছিয়ে থাকতে চায়নি স্যামসাং। কম দামে আইফোনের মতো একই ফিচারের একের পর এক ফোন বিশ্ববাজারে আনতে শুরু করে এই দক্ষিণ কোরিয়ার কোম্পানিটি। কথাতেই রয়েছে ‘চুরি বিদ্যা মহাবিদ্যা যদি না পড়ো ধরা’। কিন্তু ধরা পড়ে গিয়েছিল স্যামসাং। প্রতিযোগিতার নেশায় অ্যাপলের আইফোনের নকশা নকল করে তারা। ফলও ভুগতে হল তাদের। ক্যালিফোর্নিয়ার আদালতের নির্দেশে অ্যাপলকে এবার ৫৩৯ মিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ দিতে হবে তাদের। সাতবছরের লড়াইয়ের পরে যুদ্ধ জয়ের স্বাদ পেয়ে যথারীতি খুশি অ্যাপল কর্তৃপক্ষ। এই জয়কে তাদের কর্মীদের জয় বলে জানিয়েছে অ্যাপল কর্তৃপক্ষ।

[এই তিন মন্ত্রে আপনার সোলো ট্রিপ হয়ে উঠবে আরও মনোরম]

স্যামসাংয়ের বিরুদ্ধে ক্যালিফোর্নিয়া আদালতে মামলা দায়ের করেছিল অ্যাপল কর্তৃপক্ষ। তাদের অভিযোগ ছিল, আইফোনের নকশা নকল করেছে স্যামসাং। পাশাপাশি নকল করেছে আইফোনের ফ্রন্ট ফেসিং রিম, আইওএসের হোম স্ক্রিনের নকশা। ২০১১-তে দায়ের হওয়া এই মামলা দীর্ঘ সাতবছর ধরে চলছিল বিশ্বের দুই স্মার্টফোন জায়েন্টের মধ্যে। মামলা দায়ের করার সময় স্যামসাংয়ের কাছে ২.৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ক্ষতিপূরণ দাবি করেছিল অ্যাপল কর্তৃপক্ষ। ২০১২-তে যা কমে হয়েছিল ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। এখন আরও কমে এসেছে ক্ষতিপূরণের পরিমাণ। মামলার রায় ঘোষণায় স্যামসাংকে ৫৩৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ক্ষতিপূরণের নির্দেশ দেয় আদালত। তবে এই প্রথম নয়, গতবছরও একই ধরনের একটি মামলায় স্যামসাংয়ের বিরুদ্ধে জয়লাভ করেছিল অ্যাপল। সেক্ষেত্রে ১২০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ক্ষতিপূরণ দিতে হয়েছিল স্যামসাংকে।

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং