BREAKING NEWS

২৮ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

নেটদুনিয়ার ক্ষোভের জের, বন্ধ হল মহিলাদের মুহূর্তে নগ্ন করার অ্যাপ

Published by: Sulaya Singha |    Posted: June 30, 2019 9:09 pm|    Updated: July 1, 2019 11:13 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রযুক্তির কারিকুরিতে চোখের সামনে নিমেশে নগ্ন করে দেওয়া যাবে যে কোনও মহিলাকে। এমনই বিষাক্ত অ্যাপে আসক্ত হয়ে পড়ছিল যুব প্রজন্ম। নাম DeepNude অ্যাপ। এমন একটি অ্যাপ যে সমাজের জন্য ভাল হতে পারে না, সেটাই সমস্মরে চিৎকার করে বলছিলেন নেটিজেনরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় এনিয়ে বিতর্ক চরমে উঠেছিল। সেই ক্ষোভের মুখে পড়ে শেষমেশ চিরতরে বন্ধ করে দেওয়া হল অ্যাপটি।

[আরও পড়ুন: সাইবার দুনিয়ায় স্বনির্ভর হওয়ার লক্ষ্যে নিজস্ব ‘হোয়াটসঅ্যাপ’ আনছে ভারত]

AI পাওয়ার্ড ‘deepfake’ প্রযুক্তির সাহায্যে ভুয়ো নগ্ন ছবি তৈরি করা হত এই DeepNude অ্যাপে। যৌনউদ্রেককারী এই অ্যাপ যতদিন গিয়েছে, ততই মানুষের নজরে এসেছে। TikTok বা PUBG-র মতো জনপ্রিয়তা না পেলেও একবার যিনি এই অ্যাপে আসক্ত হয়েছেন, তিনি এর নেশা কাটিয়ে উঠতে পারছিলেন না। আর সেই কারণেই এটি ক্ষোভের মুখে পড়ে। নেটিজেনদের দাবি, এমন অ্যাপ মহিলাদের অসম্মান তো করেই, সেই সঙ্গে পর্নগ্রাফির প্রচারও করা হচ্ছে। এই কুরুচিকর অ্যাপ যে কোনও মহিলাকে বিপদেও ফেলতে পারে। যদিও অ্যাপ কর্তৃপক্ষের দাবি ছিল, শুধুমাত্র মানুষের বিনোদনের খাতিয়েই অ্যাপটি তৈরি হয়েছিল। সেটি এভাবে ভাইরাল হয়ে যাবে, কোম্পানি আন্দাজও করতে পারেনি। ৫ লক্ষের কাছাকাছি ইউজার হয়ে গিয়েছিল তাদের। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত, পাঁচ লক্ষ মানুষ এটি ব্যবহারের তুলনায় হিসেব মতো অপব্যবহার বেশি করেছেন। আর সেটাই কাল হয়ে দাঁড়ায়।

Nude

৫০ ডলারের বিনিময়েই কেনা যেত এই অ্যাপ। এছাড়া এই অ্যাপের একটি ফ্রি ভার্সানও চালু করা হয়েছিল। সংস্থার দাবি, অ্যাপটি বন্ধ করার কথা টুইটারেই জানিয়ে দিয়েছে তারা। অ্যাপটি বন্ধ হওয়ার পরই নেটদুনিয়ায় অনেক সংস্থা লিখেছে, শেষমেশ একটা ঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে DeepNude সংস্থা। মানসিক ভারসাম্যহীন মানুষদের যৌন লালসা বাড়িয়ে তুলেছিল এই অ্যাপ।

[আরও পড়ুন: ইন্টারনেটে ভুয়ো খবর ছড়ানোর জন্য দায়ী সরকারি নিষ্ক্রিয়তা, বিস্ফোরক জুকারবার্গ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement