BREAKING NEWS

০৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  সোমবার ২৩ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘ওমিক্রন’ আতঙ্কের জের, কর্মীদের নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্তের পথে Facebook-Google!

Published by: Sulaya Singha |    Posted: December 10, 2021 9:47 pm|    Updated: December 10, 2021 10:08 pm

Google, Apple, Meta and others tech companies change office opening plans due to rise of Omicron | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আতঙ্কে গত দেড় বছরেরও বেশি সময় ধরে ওয়ার্ক ফ্রম হোমে জোর দিয়েছে টেক জায়ান্টরা। গুগল থেকে ফেসবুক- প্রত্যেক নামী সংস্থাই কর্মীদের সুরক্ষার কথা ভেবে বাড়ি থেকে কাজ করার পরামর্শ দিয়ে এসেছে। বছর শেষে শোনা গিয়েছিল, নতুন করে কর্মস্থলে ফেরার প্রস্তুতি শুরু হচ্ছে এই কোম্পানিগুলিতে। কিন্তু বাদ সাধল ওমিক্রন (Omicron)। করোনার এই নয়া স্ট্রেনের দাপট এবার নাকি কর্মীদের অফিস ফেরার পরিকল্পনায় জল ঢালতে চলেছে।

গত বুধবারই নাকি সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট মেটা, যা এখনও ফেসবুক নামেই পরিচিত, ঘোষণা করেছিল, যে আগামী বছর ৩১ জানুয়ারি থেকেই কর্মীদের অফিসে ফেরানো হবে। অর্থাৎ আর বাড়ি বসে কাজ নয়, কর্মক্ষেত্রে এসেই কোভিডবিধি মেনে একসঙ্গে আগের মতো কাজ করবেন কর্মীরা। তবে এ নিয়ম বাধ্যতামূলক নয়। কর্মীরা ইচ্ছে করলে তিন থেকে পাঁচ মাস পরও অফিসে যোগ দেওয়ার সুযোগ পাবেন। কারণ মেটা সাফ জানিয়ে দিয়েছিল, অতিমারী পরিস্থিতিতে কর্মক্ষেত্রে এসে কাজ করার জন্য কোনও কর্মীকে জোর করা হবে না। তবে বাড়ি থেকে তাঁকে সবসময় অ্যাকটিভ থাকতে হবে।

[আরও পড়ুন: সাবধান! এই ৮ কারণে নিষিদ্ধ হতে পারে আপনার WhatsApp অ্যাকাউন্ট]

ফেসবুকের (Facebook) এই ঘোষণার পরই গুগল, অ্যাপেল, উবের-সহ বিভিন্ন কোম্পানি একই পথে হেঁটেছিল। গুগল জানিয়েছিল আগামী ১০ জানুয়ারি কর্মীদের অফিস যোগ দেওয়ার কথা জানিয়ে ই-মেল পাঠানো হয়েছে। একই সঙ্গে জানুয়ারিতে নতুন করে অফিসের দরজা খুলে দেওয়ার কথা ছিল অ্যাপেলেরও। কিন্তু মার্কিন মুকুলে ওমিক্রন হানা দিতেই সিদ্ধান্তে বদল ঘটাতে চলেছে এই সংস্থাগুলি। শোনা যাচ্ছে, ফেব্রুয়ারির আগে অ্যাপেলের মতো কোম্পানি কর্মীদের অফিসে ফেরানোর পথে হাঁটবে না। এক্ষেত্রে দীর্ঘায়িত হবে ওয়ার্ক ফ্রম হোম।

বারবার মিউটেড হয়ে শক্তিশালী আকার ধারন করছে ওমিক্রন। এর সংক্রামক ক্ষমতাও বেশি। ইতিমধ্যেই এই নয়া স্ট্রেনে আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে আমেরিকায়। সেই কারণেই কোনও ঝুঁকি নিতে চাইছে না টেক সংস্থাগুলি। Lyft-এর মতো কোম্পানি যেমন জানিয়ে দিয়েছে, ২০২৩ সালের আগে তারা কর্মীদের আর অফিসে ফেরাবে না।

[আরও পড়ুন: ৪ হাজার কোটি টাকার বিনিয়োগ, ভারতের বাজারে নয়া প্রযুক্তির ইলেক্ট্রিক গাড়ি আনছে Hyundai]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে