BREAKING NEWS

২০ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

বিপদের সময় রক্তের খোঁজে হন্যে? এবার সহায় ফেসবুক

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: October 1, 2017 2:25 pm|    Updated: September 27, 2019 5:13 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নেটদুনিয়ার সংজ্ঞাকে গত কয়েক বছরে অনেকখানি বদলে দিয়েছে ফেসবুক। সোশ্যাল মিডিয়া আর কেবলমাত্র ছবি, ভিডিও পোস্ট এবং চ্যাটিংয়েই সীমাবদ্ধ নেই। সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে ইউজারদের নতুন নতুন ফিচার উপহার দিয়েছে জনপ্রিয় এই সোশ্যাল সাইট। ‘সেফটি চেক’ অপশনটির মাধ্যমে অনায়াসেই বন্ধু বা আত্মীয় নিরাপদ কিনা তা জেনে নেওয়া যায়। আবার ফেসবুক লাইভের মাধ্যমে গোটা বিশ্বের যে কোনও স্থানে নেটিজেনরা ভারচুয়ালি পৌঁছতে পারেন এক নিমেষে। অর্থাৎ মার্ক জুগারবার্গ যে সহজে থামবেন না, তার ইঙ্গিত মেলে প্রতিবারই। এবার ফেসবুকের নয়া উদ্যোগ রক্তদান। হ্যাঁ, ঠিকই পড়েছেন। এবার ফেসবুকের মাধ্যমেই রক্তদান করতে পারবেন আপনিও।

[বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন বিজয়ার স্পেশ্যাল মিষ্টি]

ad55e61100edd2b2066eed14ff707328f9fa7a32-tc-img-preview

আচমকা রক্তের অভাবে প্রাণ হারান, এমন রোগীর সংখ্যা নেহাত কম নয়। সেই হার একটু হলেও কমানোর জন্য নয়া প্রয়াস ফেসবুকের। প্রশ্ন হল, কীভাবে রক্তদান করা যাবে? ভারতে ফেসবুক ইউজারদের নিউজ ফিডে একটি মেসেজ পাঠানো হচ্ছে। রক্তদানে ইচ্ছুক এমন ইউজারকে ফেসবুকে নিজের স্বাস্থ্যের বিস্তারিত তথ্য দিয়ে রেজিস্টার করতে হবে। সেই তথ্য ফেসবুক গোপনই রাখবে। একমাত্র ইউজার চাইলেই সে তথ্য তাঁর টাইমলাইনে দেখা যাবে। একইভাবে কোনও বেসরকারি ব্লাড ব্যাঙ্ক অথবা হাসপাতালেরও কিছু পোস্ট ভেসে উঠতে দেখা যাবে। যেখানে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের রক্তদানের আবেদন জানানো হবে। এভাবে কোনও ব্যক্তি অথবা প্রতিষ্ঠানের রক্তের প্রয়োজন হলে রেজিস্টার্ড ইউজারের কাছে নোটিফিকেশন এসে পৌঁছবে। যিনি আবেদন করেছেন তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে ফেসবুক ব্যবহারকারীকে। ইউজার না চাইলে আদেবনকারী তাঁর তথ্য কোনওভাবেই দেখতে পাবেন না। ইউজার আবেদনকারী বা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করে রক্তদান করতে পারবেন অনায়াসে।

[উৎসবের মরশুমে ফের দাম বাড়ল রান্নার গ্যাসের]

সোশ্যাল মিডিয়ার রমরমার জমানায় সাধারণ মানুষকে রক্তদানের গুরুত্ব বোঝাতেই এমন উদ্যোগ ফেসবুকের। আপাতত অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরাই স্মার্টফোনের ফেসবুক অ্যাপ থেকে রেজিস্টার করতে পারবেন। এমন প্রয়াসে ইতিবাচক সাড়া মিলবে বলেই আশাবাদী ফেসবুক।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement