BREAKING NEWS

১৯ আষাঢ়  ১৪২৭  শনিবার ৪ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

WhatsApp-এর আপত্তিজনক ফটো বা ভিডিও কীভাবে লুকিয়ে রাখবেন?

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 24, 2017 3:13 pm|    Updated: September 18, 2019 2:17 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হ্যাঁ, হোয়াটসঅ্যাপে আসা আপত্তিজনক ফটো বা ভিডিও লুকিয়ে রাখা সম্ভব। আপনার বান্ধবীর সঙ্গে কাটানো কোনও দুষ্টু-মিষ্টি মুহূর্তের ছবি আপনি চাইলে লুকিয়ে রাখতেই পারেন। এর ফলে আপনার স্মার্টফোন অন্য কারও হাতে চলে গেলেও আপনার হোয়াটসঅ্যাপে আসা গুরুত্বপূর্ণ ছবি বা আপত্তিজনক ভিডিও তিনি দেখতে পাবেন না। নিশ্চিন্ত হলেন তো? একটা কথা মানতেই হবে যে এখন হোয়াটসঅ্যাপ আমাদের দৈনন্দিন জীবনের অঙ্গ। বন্ধুদের পাঠানো প্রচুর মেসেজ, ভিডিও কলিং ছাড়াও আরও নানাবিধ গুরুত্বপূর্ণ কাজেও প্রয়োজন পড়ে হোয়াটসঅ্যাপের।

এবার কী করে করবেন সেই কাজ? পড়ে নিন এই প্রতিবেদনে।

মনে রাখতে হবে হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজ মারফত যত ছবি বা ভিডিও সারাদিন আপনার স্মার্টফোনে ঢোকে, সেগুলি জমা হয় ফোনের ইন্টারনাল স্টোরেজে। এবার এর মধ্যে অনেকেই এমন কিছু ছবি বা ভিডিও পাঠান, যেগুলি বাড়ির অন্যদের চোখে পড়ে গেলে আপনাকে অযথা হয়রানির মুখে পড়তে হবে। এই ঝঞ্ঝাটের হাত থেকে বাঁচার উপায়ই আজ জানাব আপনাদের।

[মানসিক অস্থিরতা তৈরি করে ফেসবুক, মানল কর্তৃপক্ষই]

১. প্রথমেই চলে যান গুগল প্লে স্টোরে। আপনার স্মার্টফোনের জন্য কোনও একটি ফাইল এক্সপ্লোরার অ্যাপ নামান। যদি আপনার ফোনে ফাইল ম্যানেজার থাকে, তাহলে অবশ্য কোনও থার্ড পার্টি অ্যাপ ডাউনলোড করার দরকার নেই।

২. ফাইল ম্যানেজারে গিয়ে দেখুন ‘হোয়াটসঅ্যাপ’ বলে একটি ফোল্ডার রয়েছে। তার ভিতরে রয়েছে ‘মিডিয়া’ বলে আরেকটি ফোল্ডার।

৩. ‘মিডিয়া’ ফোল্ডারের ভিতর রয়েছে ‘WhatsApp Images’ নামের একটি ফোল্ডার।

[বাড়িতে বসেই মোটা টাকা আয় করতে চান? পথ দেখাচ্ছে মোদি সরকার]

৪. এবার ওই ফোল্ডারটির উপর আপনার আঙুলটি কিছুক্ষণ চেপে ধরে রাখুন। তাহলেই দেখতে পাবেন, ফোল্ডারটি ‘rename’ করার অপশন দেখাবে।

৫. এটিই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ধাপ। খুব মন দিয়ে পড়বেন। WhatsApp Images নামের ফোল্ডারটির নাম বদলে করুন ‘.WhatsApp Images’। লক্ষ্য করুন, ফোল্ডারের আসল নামের আগে একটি ‘ডট’ বসানো হয়েছে।

৬. ফোল্ডারটির নাম বদলে দিলেই সেটি ‘হিডেন ফোল্ডার’ হয়ে যাবে।

[মহার্ঘ হচ্ছে রেলের খাবার, দাম বাড়তে পারে ৫০%]

৭. এবার ফোনের ফাইল ম্যানেজার বা ফটো গ্যালারিতে গিয়ে ‘show hidden files’ অপশনটি বন্ধ করুন। ব্যাস! এবার আর কেউ আপনার ফোনে হোয়াটসঅ্যাপে আসা কোনও ছবি দেখতে পাবে না। আপনি যখন চাইবেন, ‘শো হিডন ফাইলস’ অপশনটি ‘অন’ করে নিলেই দেখতে পাবেন কী কী ছবি আপনার মেসেজ এসেছে।

৮. একইভাবে আপনার হোয়াটসঅ্যাপ ভিডিও, অডিও ফাইলও আপনি লুকিয়ে রাখতে পারেন।

তাহলে এবার আপনার ও আপনার বন্ধু বা বান্ধবীর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ছবি লুকিয়ে রাখতে কোনও অসুবিধা হবে না। বন্ধুরাও যদি কেউ আপনাকে আপত্তিজনক কোনও ছবি/ভিডিও পাঠান, সেটাও বাড়ির বড়দের কাছ থেকে লুকিয়ে রাখতে পারবেন সহজেই। আর এই সহজ পদ্ধতিটি আপনার বন্ধুদের জানাতে প্রতিবেদনটি শেয়ার করতে ভুলবেন না যেন।

[জেনে নিন, কীভাবে বাড়িতে বসেই আধারের সঙ্গে মোবাইল নম্বর লিঙ্ক করাবেন]

বুঝতে অসুবিধা হচ্ছে? তাহলে দেখে নিন এই ভিডিওটি:

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement