ad
ad

Breaking News

Tech

‘দেশে ফিরুন, চাকরি দেব’, টুইটার, মেটায় কাজ হারানো ভারতীয়দের স্বাগত দেশীয় প্রযুক্তি কর্তার

বিশ্বজুড়ে বহু ভারতীয় তথ্যপ্রযুক্তি কর্মীই পড়েছেন বিপদে।

Indian tech CEO offers jobs to thousands of employees fired by Twitter, Meta etc। Sangbad Pratidin
Published by: Biswadip Dey
  • Posted:November 11, 2022 3:53 pm
  • Updated:November 11, 2022 3:53 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বুধবার ১১ হাজারেরও বেশি কর্মী ছাঁটাইয়ের কথা ঘোষণা করেছে মেটা (Meta)। ছাঁটাই শুরু করেছে টুইটারও (Twitter)। এমনকী স্পটিফাইও শুরু করেছে কর্মী সংকোচন। স্বাভাবিক ভাবেই এই পরিস্থিতিতে বিশ্বজুড়ে তথ্যপ্রযুক্তি কর্মীরা পড়েছেন বিপদে। তাঁদের মধ্যে একটা বড় অংশই ভারতীয়। কিন্তু এবার তাঁদের জন্য মুশকিল আসান হয়ে দাঁড়ালেন আরেক ভারতীয়ই। তিনি ড্রিম স্পোর্টসের প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও হর্ষ জৈন। তাঁর প্রস্তাব, ভারতীয় সংস্থাগুলিতে যোগ দিন ভারতীয় কর্মীরা। এতে তাঁদের ভবিষ্যৎও সুরক্ষিত হবে। আবার ভারতীয় প্রযুক্তি সংস্থাগুলিও সমৃদ্ধ হবে।

টুইটারে পোস্ট করে তিনি লেখেন, ”২০২২ সালে যে প্রযুক্তি কর্মীরা আমেরিকায় চাকরি খুইয়েছেন (৫২ হাজার), তাঁরা সবাই ভারতীয় কর্মীদের দেশে ফিরে আসতে বলুন (বিশেষ করে যাঁরা ভিসা সমস্যায় ভুগছেন)। তাঁরা এলে ভারতীয় প্রযুক্তির দুনিয়াও আগামী দশকের জন্য নতুন করে সমৃদ্ধ হতে পারবে।”

[আরও পড়ুন: দশ বছর পরপর আপডেট করতে হবে আধারের তথ্য, নয়া নিয়ম আনছে কেন্দ্র!]

প্রসঙ্গত, বিশ্বজুড়ে মেটার বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে কর্মী ছিলেন ৮৭ হাজার। এক বছরে কর্মী সংখ্যা বাড়ে ২৮ শতাংশ। চলতি সপ্তাহে সংস্থার কর্মীদের প্রতিটি দিন অফিসে হাজির থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। এরপরই বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে কর্মরত ১১ হাজার কর্মী ছাঁটাইয়ে কথা জানায় মেটা। এই বিষয়ে সংস্থার কর্ণধার মার্ক জুকারবার্গের সংক্ষিপ্ত প্রতিক্রিয়া, “আমি জানি এটা সকলের জন্য কঠিন সিদ্ধান্ত ছিল। ব্যক্তিগত ভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি তাঁদের প্রতি, যাঁরা এই সিদ্ধন্তে ফলে প্রভাবিত হবেন।”

একই ভাবে টুইটার কেনার পর মাস্কও কর্মী ছাঁটাইয়ের পথে নেমেছেন। পাশাপাশি নেটফ্লিক্স, মাইক্রোসফট, জিলো, স্পটিফাইও শুরু করেছে ছাঁটাই। বহু অভিজ্ঞ ভারতীয় তথ্যপ্রযুক্তি কর্মীকে এর ফলে খোয়াতে হয়েছে চাকরি। এই অবস্থায় ঘুরে দাঁড়াতে যে বার্তা দিচ্ছেন হর্ষ, তা অত্যন্ত সদর্থক বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। তাঁর সংস্থাটি ৮০০ কোটি মার্কিন ডলারের সংস্থা। সেখানে কর্মরত বহু কর্মী। এই অবস্থায় সেই সংস্থার প্রধান হর্ষ স্বাগত জানালেন ভারতীয়দের।

[আরও পড়ুন: ‘প্ররোচনা দিলে অনেক কিছুই হতে পারে’, কামড় কাণ্ডে পুলিশের পাশে স্পিকার]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ