৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  বুধবার ২২ মে ২০১৯ 

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সোশ্যাল মিডিয়ায় আসক্তি। আধুনিক প্রজন্মের একটি অন্যতম বড় সমস্যা। প্রতিদিন, প্রতিনিয়ত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলিতে গোটা দুনিয়ার খবরাখবর না রাখলে অনেকটা পেটের ভাত হজম না হওয়ার মতো ব্যাপার। ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ার এই আসক্তি রীতিমতো সমস্যার। কিন্তু এবার হয়তো অভিভাবকরা কিছুটা নিশ্চিন্ত হতে পারেন। কারণ সাম্প্রতিক একটি সমীক্ষা বলছে, ফেসবুকের প্রতি আসক্তি ক্রমশ কমছে। শুধু কমছে বলা ভুল, যুবসমাজ নাকি ফেসবুকের প্রতি রীতিমতো বিতৃষ্ণ।

[বিশাল অফার! উৎসবের মরশুমে টিকিট বুকিংয়ে বিশেষ ছাড় আইআরসিটিসির]

আমেরিকার বিখ্যাত সংস্থা পিউ রিসার্চ সেন্টার সম্প্রতি মার্কিন নাগরিকদের উপর সমীক্ষাটি চালায়। সমীক্ষায় দেখা যাচ্ছে মার্কিন মুলুকের একটা বিরাট অংশের মানুষ নিয়মিত ফেসবুক প্রোফাইল চেক করা বন্ধ করে দিয়েছেন। প্রায় ৪২ শতাংশ মানুষ জানিয়েছেন তাঁরা কয়েক মাস ফেসবুক থেকে বিরত থাকতে চান। প্রায় ১ চতুর্থাংশ মানুষ বলছেন, ফেসবুকের প্রতি বিতৃষ্ণার জেরে তাঁরা অ্যাপটিই ডিলিট করে দিয়েছেন স্মার্ট ফোন থেকে। মজার কথা হল যে ২৬ শতাংশ মানুষ ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ডিলিট করে দিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে তাঁদের প্রায় অর্ধেকই ছাত্র এবং যুবসম্প্রদায়ের। কারণ অ্যাকাউন্ট ডিলিট করা গ্রাহকদের মধ্যে ৪৪ শতাংশ ১৮ থেকে ২৯ বছর বয়সের মধ্যে। বয়স্ক মানুষদের মধ্যে অবশ্য এই সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মটির প্রতি তেমন একটা বিতৃষ্ণা নেই। মাত্র ১২ শতাংশ বৃদ্ধ (৬৫ বছরের ঊর্ধ্বে) মানুষ বলছেন যে তাঁরা ফেসবুক ব্যবহার করে সন্তুষ্ট নন, এবং অ্যাকাউন্ট ডিলিট করতে চান। বাকি ৮৮ শতাংশ মানুষ এখনও ফেসবুকের প্রতি আসক্ত।

[চোখের নিমেষে ভেরিফাই করে ফেলুন আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি]

সব মিলিয়ে, সময়টা খুব একটা ভাল যাচ্ছে না ফেসবুকের। সম্প্রতি, ওয়াল স্ট্রিটেও ফেসবুকের শেয়ারের দর অনেকটা পড়েছে এক ধাক্কায়। কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা, মার্কিন নির্বাচনে ফেসবুকে হ্যাকিংয়ের অভিযোগ, এসবের পর জনপ্রিয়তা যেভাবে কমছে তাতে আরও বড় লোকসানের মুখে পড়তে হতে পারে জুকেরবার্গের সংস্থাকে।   

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং