ad
ad

Breaking News

Telegram

Telegram-এ প্রতারণার ফাঁদ! ৪৬ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নদিয়ার পঞ্চায়েত সদস্য-সহ গ্রেপ্তার তিন

ধৃতদের জেরা করে চক্রের মাথাদের সন্ধান চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

Nadia Panchayat member among three arrested in 46 lakh rupee cheating through telegram
Published by: Tiyasha Sarkar
  • Posted:February 9, 2024 11:39 am
  • Updated:February 9, 2024 12:08 pm

অর্ণব আইচ: টেলিগ্রাম অ‌্যাপের মাধ্যমে ৪৬ লক্ষ টাকা  প্রতারণা। নদিয়ার এক পঞ্চায়েত সদস‌্যকে গ্রেপ্তার করলেন লালবাজারের গোয়েন্দারা। পুলিশ জানিয়েছে, বিল্টু মিত্র নামে এক ব‌্যক্তিকে প্রথমে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁকে জেরা করে অঙ্কুর কর ও সোমনাথ মিত্র নামে আরও দু’জনকে গোয়েন্দা পুলিশ গ্রেপ্তার করে। পুলিশের দাবি, বিল্টু মিত্র নামে ওই ব‌্যক্তি নদিয়ার পায়রাডাঙার গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস‌্য।

জানা গিয়েছে, অভিযুক্তরা টেলিগ্রাম অ‌্যাপে একটি গ্রুপ তৈরি করেছিলেন। যাঁরা যোগ দেন তাঁদের কিছু হোটেলের ছবি ও ভিডিও পাঠিয়ে সেগুলির প্রচারের ব‌্যবস্থা ও লাইক করতে বলা হয়। তার বদলে তাঁরা টাকা পেতে শুরু করেন। এর পর তাঁদের বলা হয় ওই হোটল ব‌্যবসায় লগ্নি করলে প্রচুর লাভ হবে। যাঁরা ফাঁদে পা দেন, তাঁদের প্রথমে কিছু টাকাও দেওয়া হয়। কিন্তু ক্রমে বিভিন্ন কারণ দেখিয়ে টাকা ফেরত দেওয়া বন্ধ করে দেয় প্রতারকরা। এভাবে এক ব‌্যক্তি ৪৬ লক্ষ টাকা খুইয়ে লালবাজারের সাইবার থানায় অভিযোগ জানান।

[আরও পড়ুন: লোকসভা ভোটের আগে মাস্টারস্ট্রোক! ফের ডিএ বাড়ল রাজ্য সরকারি কর্মীদের]

দেখা যায়, আটটি অ‌্যাকাউন্টে ওই টাকা পাঠানো হয়। এর মধ্যে দশ লক্ষ টাকা পাঠানো হয় নদিয়ার এক মহিলার অ‌্যাকাউন্টে। ওই অ‌্যাকাউন্ট তাঁর স্বামী বিল্টু মিত্র পরিচালনা করেন, যিনি এলাকার পঞ্চায়েত সমিতির সদস‌্য। ওই রাজনৈতিক নেতার কথায় বিশ্বাস করে আরও দুই ব‌্যক্তি অ‌্যাকাউন্ট ভাড়া দেন। তাঁদেরও গ্রেপ্তার করা হয়। ধৃতদের জেরা করে চক্রের মাথাদের সন্ধান চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: দিল্লির জল বোর্ডের দুর্নীতির টাকা যেত আপের নির্বাচনী তহবিলে, চাঞ্চল্যকর দাবি ইডির]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ