BREAKING NEWS

১৫ ফাল্গুন  ১৪২৭  রবিবার ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

তথ্য সুরক্ষা নিয়ে প্রশ্নের মধ্যেই এবার টুইটার এবং ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে তলব সংসদীয় কমিটির

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: January 17, 2021 9:26 pm|    Updated: January 17, 2021 9:33 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিপাকে ফেসবুক (Facebook) এবং টুইটার (Twitter)। এবার দুই সোশ্যাল মিডিয়া সংস্থাকে সমন পাঠাল তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক কেন্দ্রীয় সংসদীয় কমিটি (Parliamentary Standing Committee)। আগামী ২১ জানুয়ারি দুই সংস্থার আধিকারিকদের উপস্থিত হতে হবে ওই কমিটির সামনে, দেওয়া হয়েছে এই নির্দেশই। সোশ্যাল মিডিয়ার অপব্যবহার রুখতেই এই পদক্ষেপ।

গত কয়েকবছরে ভারতে বেড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহার। করোনাকালে লকডাউনের পর যা আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে এর সঙ্গেই বেড়েছে সাইবার অপরাধও। এখানেই শেষ নয়, ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্যও সুরক্ষিত নয়। এই প্রসঙ্গেই এবার ফেসবুক-টুইটারের আধিকারিকদের সমন পাঠাল তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক কেন্দ্রীয় সংসদীয় কমিটি। বিবৃতিতে বৈঠকের বিষয় হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে, সোশ্যাল মিডিয়ার অপব্যবহার রুখতে এবং ব্যবহারকারীদের তথ্য সুরক্ষিত রাখতে কী কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, সেই সম্পর্কে জানতেই মূলত ডাকা হয়েছে ওই দুই সংস্থার আধিকারিকদের। এর আগে গত বছর অক্টোবরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য সুরক্ষিত রাখার প্রসঙ্গে তলব করা হয়েছিল ফেসবুক এবং টুইটারের আধিকারিকদের।

 

[আরও পড়ুন: ভরসা জিততে ব্যর্থ WhatsApp, এবার গুগল সার্চেই মিলছে ইউজারদের মোবাইল নম্বর!]

গত কয়েকদিন ধরেই শিরোনামে রয়েছে ফেসবুকের মালিকানাধীন হোয়াটসঅ্যাপ। তাদের নয়া প্রাইভেসি পলিসি (Privacy policy) নিয়ে প্রবল বিতর্ক দেখা দেয়। যদিও শেষপর্যন্ত চাপের মুখে পিছু হটেছে তারা। জনপ্রিয় মেসেজিং অ্যাপের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, প্রাইভেসি আপডেটের বিষয়টি আপাতত স্থগিত রাখা হচ্ছে। ইউজারদের মধ্যে যাতে কোনও ভুল বোঝাবুঝি না থাকে, সেজন্য তারা তাঁদের আরও বেশি সময় দিতে চায়। হোয়াটসঅ্যাপের দাবি, ছড়িয়ে পড়া নানা গুজবের ফলে ইউজাররা উদ্বিগ্ন হচ্ছেন তথ্যসুরক্ষার বিষয়টি নিয়ে। সেই কারণেই এই সিদ্ধান্ত নিল তারা।

ফেসবুকের (Facebook) মালিকানাধীন সংস্থার তরফে টুইট করে জানানো হয়েছে, যে তারিখের মধ্যে সবাইকে পলিসি আপডেটের বিষয়ে সম্মতি দিতে বলা হয়েছিল তা বাতিল করা হল। পূর্ব ঘোষণা মতো, ৮ ফেব্রুয়ারি কারও অ্যাকাউন্টই ডিলিট করা হবে না। আপাতত হোয়াটসঅ্যাপ সমস্ত ইউজারদের ভুল ধারণাকে ভাঙানোর লক্ষ্যেই এগোবে। হোয়াটসঅ্যাপের প্রাইভেসি ও তথ্যসুরক্ষার বিষয়ে সকলকে সঠিক ধারণা দেওয়ার পরে ধীরে ধীরে পলিসি রিভিউয়ের দিকে এগনো হবে। আগামী ১৫ মে তাদের নতুন বিজনেস অপশন আসার আগে ফের রিভিউয়ের কথা ভাবা হবে বলে জানানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: এতদিন ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি কেন? ফেসবুক, টুইটারকে তোপ উইকিপিডিয়ার প্রতিষ্ঠাতার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement