১৩ কার্তিক  ১৪২৭  শনিবার ৩১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

বিপাকে এয়ারটেল-ভোডাফোন, মধ্যরাতের মধ্যে বকেয়া ৯২ হাজার কোটি টাকা মেটানোর নির্দেশ

Published by: Sulaya Singha |    Posted: February 14, 2020 9:21 pm|    Updated: February 14, 2020 9:24 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আজ অর্থাৎ শুক্রবার মধ্যরাতের মধ্যেই বকেয়া ৯২ হাজার কোটি টাকা মেটাতে হবে। টেলিকম কোম্পানিগুলিকে এমনই কড়া নির্দেশ দিল টেলিকম মন্ত্রক।

গত বছর অক্টোবর টেলিকম সংস্থাগুলিকে সুপ্রিম কোর্ট কেন্দ্রীয় আধিকারিককে নির্দেশ দিয়েছিল, তিন মাসের মধ্যে টেলিকম সংস্থাগুলি যাতে সব বকেয়া মেটায়, সে বিষয়টি নিশ্চিত করতে। কিন্তু শীর্ষ আদালতের নির্দেশ কানে তোলেনি টেলিকম সংস্থাগুলি। নির্ধারিত সময় পেরিয়ে যাওয়ার পরও অধিকাংশ টেলিকম সংস্থা বকেয়ার এক পয়সাও দেয়নি। যা আদালত অবমাননারই শামিল। আর তাই এবার কড়া পদক্ষেপ করল কেন্দ্র। আজই বকেয়া অর্থ মেটানোর নির্দেশ দেওয়া হল।

[আরও পড়ুন: ৫০০০ টাকার কম মূল্যের স্মার্টফোন আর বিক্রি হচ্ছে না ভারতে, কেন জানেন?]

৩ মাসের মধ্যে বকেয়া মেটানোর রায়ের পুনর্বিবেচনার আরজি জানানো হয়েছিল। তা খারিজ হয়ে গেলে বাড়তি সময় চেয়ে ফের সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয় মন্ত্রক। শুক্রবার ছিল সেই আরজিরই শুনানি। কেন আদালত অবমাননা করা হল? এয়ারটেল, ভোডাফোন-সহ একাধিক টেলিকম সংস্থার আধিকারিকদের এই মর্মে শোকজ নোটিস দিয়েছে বিচারপতি অরুণ মিশ্র, বিচারপতি আবদুল নাজির এবং বিচারপতি এম আর শাহের বেঞ্চ। সেই সঙ্গে টেলিকম মন্ত্রকের কাছ থেকে জানতে চাওয়া হয়েছে, কোন অধিকারে সুপ্রিম কোর্টের রায় অমান্য করে অ্যাডজাস্টেড গ্রস রেভিনিউ ফ্রিজিংয়ের নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে?

রীতিমতো বিরক্তির সুরেই বিচারপতিরা বলেন, এ দেশে কি কোনও আইন নেই? যে কোনও ধরনের দুর্নীতি বন্ধ হওয়া উচিত। টেলিকম সংস্থাগুলিকে এটাই শেষ সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। এরপর আর সতর্ক করা হবে না। মামলার পরবর্তী শুনানি মার্চের ১৭ তারিখ। তার আগে যদি বকেয়া ৯২ হাজার কোটি টাকা না মেটানো হয়, তাহালে সংস্থাগুলির আধিকারিকদের সশরীরে আদালতে হাজিরা দিতে হবে বলেও জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

আসলে শীর্ষ আদালতের দেওয়া ৩ মাসের মেয়াদ শেষ হওয়ার পর টেলিকম মন্ত্রক জানিয়েছিল, আদালত অবমাননা সত্ত্বেও সংস্থাগুলির বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে না। মন্ত্রকের এই ঘোষণার পরই এয়ারটেল, ভোডাফোন আইডিয়ার মতো সংস্থাগুলি জানিয়ে দেয়, সুপ্রিম কোর্টের শেষ নির্দেশ না আসা পর্যন্ত তারা বকেয়া মেটাবে না। জিও বকেয়া ১৯৫ কোটি টাকা মিটিয়ে দিলেও এয়ারটেল এবং ভোডাফোন আইডিয়ার বকেয়া রয়েছে ৮৮,৬২৪ কোটি টাকা।

[আরও পড়ুন: নেটদুনিয়ায় হেনস্তার শিকার কমবয়সিরাই, ‘ডিজিটাল শিষ্টাচারে’ পিছিয়ে ভারত]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement