৭ আষাঢ়  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২২ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

এই ফিচারটি আপডেট করল হোয়াটসঅ্যাপ, সমস্যায় পড়বেন গ্রাহকরা

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: October 16, 2018 7:10 pm|    Updated: October 16, 2018 7:10 pm

WhatsApp planing to update its feature

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বছরখানেক আগেই ফিচারটি এনেছিল হোয়াটসঅ্যাপ। ডিলিট ফর এভরিওয়ান, এই ফিচারের মাধ্যমে কাউকে পাঠানো মেসেজ ডিলিট করে ফেলা যেত সহজেই। কোনও মেসেজ একবার পাঠিয়ে ফেললেও এখন ‘ট্র্যাশ’ অপশনে ক্লিক করে মুছে ফেলা যায়। রয়েছে ‘ডিলিট ফর মি’ অপশনও। যার সাহায্যে যিনি মেসেজ পাঠিয়েছেন, তিনি নিজের ফোন থেকে মেসেজটি মুছে ফেলতে পারেন। এখানে মেসেজ বলতে শুধু টেক্সট নয়, ইমেজ, জিআইএফ, ভিডিও, ভয়েস মেসেজ, কন্ট্যাক্ট, ফাইল, লোকেশন-সবই মুছে ফেলা যায় হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট থেকে। তবে ফেসবুক অধীনস্থ মেসেজিং অ্যাপটির একটাই শর্ত ছিল ফিচারটি মেসেজ পাঠানোর সাত মিনিটের মধ্যে ব্যবহার করলে তবেই ফল মিলত। পরে এই সময়সীমা বাড়িয়ে দেওয়া হয়। নতুন সময়সীমা করা হয় ১ ঘণ্টা ৮ মিনিট ১৬ সেকেন্ড। অর্থাৎ, আগের নিয়ম শিথিল করে বলা হয় এই ১ ঘণ্টা ৮ মিনিট ১৬ সেকেন্ডের মধ্যে মেসেজ করলেও মেসেজ ডিলিট হবে। কিন্তু এবার সেই ফিচারে কড়াকড়ি আনতে চলেছে হোয়াটসঅ্যাপ।

[প্রায় ৩ কোটি অ্যাকাউন্ট হ্যাক, কবুল করল ফেসবুক]

হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নিয়েছে, এবার আর আপনি চাইলেই পাঠানো মেসেজ ডিলিট করতে পারবেন না। আপনি ডিলিট করতে চাইলে যাকে মেসেজটি পাঠিয়েছেন তাঁর কাছে একটি ‘রিভোক রিকোয়েস্ট’ যাবে। অর্থাৎ, যার কাছে মেসেজটি যাওয়ার কথা ছিল তিনি সেই রিকোয়েস্ট পাওয়ার পরই ডিলিট হবে মেসেজটি। অর্থাৎ আপনি আর কাউকে পাঠানো মেসেজ তাঁকে না জানিয়ে ডিলিট করতে পারবেন না। ডিলিট ফর এভরিওয়ান ফিচারটির অপব্যবহার রুখতেই এই পদ্ধতি অবলম্বন করতে চলেছে হোয়াটসঅ্যাপ।

[এই অ্যাপের মাধ্যমে চোখের নিমেষে ফাইল যাবে মোবাইল থেকে কম্পিউটারে]

হোয়াটসঅ্যাপের তরফে জানানো হয়েছে, মেসেজ ডিলিট করার পরই যাঁকে পাঠানো হয়েছিল তাঁর কাছে রিভোক রিকোয়েস্ট যাবে। তিনি যদি রিসিভ না করেন তাহলে ১৩ ঘণ্টা পর্যন্ত অপেক্ষা করা হবে। তাঁর মধ্যেও যদি ওই ব্যক্তি মেসেজ রিসিভ না করেন তাহলে মেসেজটি ডিলিট করা যাবে না। এককথায় আগের তুলনায় মেসেজ ডিলিট করাটা অনেকটা কঠিন হয়ে গেল।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement