৩১ ভাদ্র  ১৪২৬  বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: উন্নত প্রযুক্তি আর স্মার্টফোনের যুগে এখন সকলেই ফটোগ্রাফার। কেউ মনের মতো সেলফি তুলতে দিনভর ক্যামেরার সামনে পোজ দেন, তো কেউ লেন্সবন্দি করতে ভালবাসেন প্রকৃতিকে। কারও লেন্স আবার ঘুরে বেড়ায় স্মৃতির সরণিতে। সময়ের সঙ্গে ফটোগ্রাফির সংজ্ঞা বদলালেও ক্যামেরা আর চিত্রগ্রাহকের মধ্যে ভালবাসার সম্পর্ক এখনও একইরকম। আজ অর্থাৎ ১৯ আগস্ট, বিশ্ব ফটোগ্রাফি দিবসে, চলুন ছবির দুনিয়ার ইতিহাসের পাতায় ঢুঁ মারা যাক।

একটা ছবির মধ্যে লুকিয়ে থাকে অনেক না-বলা কথা। একটা ছবি হয়ে উঠতে পারে যোগাযোগের মাধ্যম। একটা মুহূর্ত ফ্রেমবন্দি হয়ে অনন্তের দিকে ধাবিত হয়। ১৮৩৭ সালে ড্যাগেরোটাইপের আবিষ্কারের পর বিশ্ব ফটোগ্রাফি দিবস উদযাপন শুরু হয়েছিল। ড্যাগেরোটাইপ হল প্রথম সফল ফটোগ্রাফিক প্রক্রিয়া। ফ্রান্সের লুই ড্যাগেরে এবং জোসেফ নাইসফোরের হাত ধরে এই পদ্ধতির সঙ্গে বিশ্বের পরিচিতি ঘটে। ১৮৩৯ সালের ৯ জানুয়ারি ফরাসি বিজ্ঞান অ্যাকাডেমি এই প্রক্রিয়ার সাফল্য আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করেছিল। আর সেবছরই ১৯ আগস্ট ফ্রান্স সরকার গোটা বিশ্বের সামনে তুলে ধরেছিল অভূতপূর্ব এই উপহারটি।

এরপর ১৮৬১ সালে প্রথম রঙিন ছবি তোলেন থমাস সুট্টোন। আর ডিজিটাল ফটোগ্রাফির সঙ্গে সাধারণ মানুষের পরিচয় ঘটে ১৯৫৭ সালে। তারও ২০ বছর পর কোডাকের ইঞ্জিনিয়ার প্রথম ডিজিটাল ক্যামেরা আবিষ্কার করেন। তবে প্রথম গ্লোবাল অনলাইন গ্যালারির বয়স বেশ কম। ২০১০ সালে বিশ্ব ফটোগ্রাফি দিবসে প্রথমবার আয়োজিত হয়েছিল এই গ্যালারি।

[আরও পড়ুন: এবার ফেসবুকেই দেখা যাবে সিনেমার শো টাইম, কাটা যাবে টিকিটও!]

যাঁরা মুহূর্তকে লেন্সবন্দি করতে ভালবাসেন, তাঁরা নিশ্চয়ই চান, তাঁদের তোলা ছবিটি হয়ে উঠুক পিকচার পারফেক্ট। তাই এই বিশেষ দিনে বিশেষজ্ঞদের তরফে রইল কিছু টিপস।

  • বিশেষজ্ঞ ফটোগ্রাফাররা বলছেন, ভাল ছবি তুলতে হলে ক্যামেরার পিছনে একটু খরচ করতেই হবে। নাহলে সস্তার ক্যামেরার তিন অবস্থা তো হবেই, ছবির গুণমানও খুব ভাল কিছু হবে না।
  • ছবি তোলার সময় আপনার ছবির বিষয়বস্তু যদি সজাগ হয়ে যায়, তবে ছবির মজাটাই নষ্ট। প্রাকৃতিক সৌন্দর্যকে যেমন তার স্বাভাবিক রূপেই লেন্সবন্দি করা যায়, তেমনভাবেই তুলতে হবে কোনও মানুষ বা ওয়াইল্ড লাইফের ছবি। তাই নিজেকে এমন জায়গায় রাখতে হবে, যাতে বিষয়বস্তু কোনওভাবে সতর্ক না হয়ে যায়। ন্যাচারাল বা অকৃত্রিম ছবিই কিন্তু সেরা ফটোগ্রাফির চাবিকাঠি।

[আরও পড়ুন: রিলায়েন্স জিও ফাইবার পরিষেবা পেতে রেজিস্টার করুন এই সহজ উপায়ে]

  • ক্যামেরা বা লেন্স উন্নতমানের হলেই যে দারুণ ছবি আসবে, তা নয়। ফটোগ্রাফিক সেন্স থাকাটা অত্যন্ত জরুরি। একটা দৃশ্য নানা দিক থেকে নানারকম দেখায়। আপনার দেখার চোখই বলে দেবে ঠিক কোন জায়গা থেকে সেরা ছবিটি উঠবে।
  • রাস্তাঘাটে এমন অনেক দৃশ্য চোখে পড়ে যার মধ্যে কোনও একটা গল্প লুকিয়ে থাকে। তা আনন্দ বা কষ্টেরও হতে পারে। আবার অনুপ্রেরণা বা সাফল্যেরও। আপনার দূরদর্শিতাই বলে দেবে আপনি ভাল ফটোগ্রাফার কি না।
  • জুম লেন্স ক্যামেরার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। এটিকে সঠিকভাবে কাজে লাগাতে পারলে তুচ্ছ বস্তুও অনেক সুন্দর হয়ে উঠতে পারে।

তাই বিশ্ব ফটোগ্রাফি দিবসে নিজের সেরা ক্লিকটি পেতে অবশ্যই মাথায় রাখুন এসব টিপস।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং