২৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  রবিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতের বাজারে চিনা সংস্থার স্মার্টফোনের জনপ্রিয়তা কিন্তু বেড়েই চলেছে। শাওমি, অপ্পো বা ভিভো-র মতো চিনা সংস্থাগুলির হ্যান্ডসেট কিন্তু নোকিয়া বা স্যামসাংকে বিক্রির নিরিখে কড়া টক্কর দিচ্ছে। শাওমির দেয়, তাদের রেডমি নোট ৪ মডেলটি ভারতের সবচেয়ে বিক্রি হওয়া স্মার্টফোন। তাদের এই দাবি সত্যি হলে, ভারতের সবচেয়ে জনপ্রিয় স্মার্টফোনটির দাম কিন্তু এক ধাক্কায় বেশ খানিকটা কমল।

[অনলাইনে জোড়া সেল, মোবাইল-সহ একগুচ্ছ পণ্যে ৮০% পর্যন্ত ছাড়]

বুধবার সংস্থার ভারতীয় শাখার কর্ণধার মনু কুমার জৈন বুধবার এ কথা টুইট করে জানিয়েছেন বুধবার। তিনি জানিয়েছেন, ৪ জিবি+ ৬৪ জিবি ভেরিয়েন্টের দাম একধাক্কায় এক হাজার টাকা কমল। এখন ফোনটির নতুন দাম ১০,৯৯৯ টাকা। তবে ৩ জিবি+ ৩২ জিবি ভেরিয়েন্টের দাম কমেনি। এই নিয়ে দ্বিতীয়বার নোট ৪-এর দাম কমল। শেষবার গতবছরের নভেম্বরেও ফোনটির দাম ১ হাজার টাকা কমেছিল। নোট ৪ যখন ভারতে আত্মপ্রকাশ করে, তখন এর দাম ছিল প্রায় ১৩ টাকা। ২ হাজার টাকা দাম কমে এখন ফোনটির দাম গিয়ে দাঁড়াল ১১ হাজার টাকায়। মনু কুমার জৈন আরও জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীর ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ প্রকল্পকে সফল করতে রেডমি হ্যান্ডসেটগুলি এখন ভারতেই তৈরি হচ্ছে। শুধু তাই নয়, এতদিন ফোনটি পাওয়া যেত এমআই ডট কম ও ফ্লিপকার্টে। কিন্তু এবার আমাজন-এর মতো ই-কমার্স সাইট ও রিটেল স্টোরেও পাওয়া যাবে রেডমি নোট ৪। এখন প্রশ্ন হল, কী এমন রয়েছে এই ফোনে যে ভারতে এর চেয়ে জনপ্রিয় হ্যান্ডসেট আর নেই। তাহলে আসুন একবার দেখে নেওয়া যাক এই হ্যান্ডসেটটির বৈশিষ্ট্য।

এখন কেউ স্মার্টফোন কিনতে যাওয়ার আগে খোঁজ নেন ফোনটির ‘ভ্যালু ফর মানি’ কত? মানে, কোনও ফোন পয়সা খরচ করতে কিনব, কিন্তু তাতে পয়সা উসুল হবে তো? ১০ হাজার টাকার ফোন অন্তত কয়েক বছর নির্বিঘ্নে চলবে তো? তাহলে জেনে রাখুন, রেডমি নোট ৪ হ্যান্ডসেট কিন্তু পয়সা উসুল স্মার্টফোন। ১১ হাজার টাকায় ফোর-জি ডুয়াল সিম, লেটেস্ট অ্যান্ড্রয়েড আপডেট। ৫.৫ ইঞ্চির ফুল এইচডি ডিসপ্লে হ্যান্ডসেটটির দাম অবশ্য শুরু হচ্ছে ৯,৯৯৯ টাকা থেকে৷ ২, ৩ জিবি র‍্যামের সঙ্গে ৩২ জিবি ইন্টারনাল, ৪ জিবি র‍্যামের সঙ্গে ৬৪ জিবি স্টোরেজ বান্ডল৷ ২ গিগাহার্ৎজ অক্টা-কোর কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন প্রসেসরের ও ৪১০০ এমএএইচ ব্যাটারি সমৃদ্ধ ফোনটির ওজন ১৭৫ গ্রাম৷ ডুয়াল হাইব্রিড সিম স্লট, মানে এসডি কার্ড ঢোকালে মাত্র একটিই সিম ঢোকানোর জায়গা থাকবে৷ রয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরও৷ ফোর-জি এই হ্যান্ডসেটে কল কোয়ালিটিও বেশ ভাল বলে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন ইউজাররা৷ ১৩ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা ও ৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরায় ছবির মান নিয়ে অবশ্য সামান্য অসন্তোষ রয়েছে ইউজারদের৷ অনেকেই বলছেন ফ্রন্ট ক্যামেরায় তোলা ছবির গুণমান আশাপ্রদ নয়৷

[শুধু অনলাইনে নয়, এবার দোকানেও মিলবে Xiaomi Redmi Note 4]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং