BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৫ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

বর্ষার রসনায় ভাতের সঙ্গে থাক মানকচুর ভরতা আর থোড় গোবিন্দ

Published by: Sayani Sen |    Posted: August 4, 2018 8:31 pm|    Updated: August 4, 2018 8:31 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভয় নেই, গলা চুলকোবে না। অনবদ্য এই পদটি বানানো যেমন সোজা, খেতেও তেমনি মুখরোচক। গরম ভাতের সঙ্গে পেলে আর কিছু চাইবেন না। মানকচুর ভরতার স্বাদ মুখে লেগে থাকবে আজীবন। চলুন দেখে নিই সহজেই কীভাবে বানাবেন মানকচুর ভরতা ও থোড় গোবিন্দ।

[অল্প তেলের পদ, চেখে দেখুন মুসুর ডালের পাতুরি]

মানকচুর ভরতা তৈরির উপকরণ: মানকচু ২০০ গ্রাম,  সরষে বাটা  ২ টেবিল চামচ,  নারকেল কোরা ১/২ কাপ,  কাঁচালঙ্কা ২-৩ টি,  নুন স্বাদমতো,  সামান্য চিনি ও  সরষের তেল ১ টেবিল চামচ।

[বর্ষার রসনায় পাতে থাক সুস্বাদু লোটে মাছের ঝুরো]

কীভাবে বানাবেন: মানকচু ধুয়ে খোসা ছাড়িয়ে নিন। গ্রেটার দিয়ে কুরিয়ে নিন। কোরানো কচু ভালভাবে চিপে সাদা দুধের মতো রসটুকু বার করে দিন। মিক্সিতে সরষে বাটা, নারকেল কোরা,  কচু,  লঙ্কা,  নুন ও চিনি দিন। সামান্য জল মিশিয়ে পেস্ট করুন। শিলনোড়াও ব্যবহার করতে পারেন। মিক্সি থেকে নামিয়ে কাঁচা সরষের তেল দিয়ে মাখুন। গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন। জিভে জল আনা স্বাদ পাবেন।

[অতিথি আপ্যায়ন করুন অন্যরকম ডিশ দিয়ে, মুরগি দিয়ে রাঁধুন মুগ ডাল]

থোড় গোবিন্দ তৈরির উপকরণ: কচি থোড়, ভিজিয়ে রাখা  গোবিন্দভোগ চাল, কাজু-কিশমিশ, আদা বাটা, কাঁচালঙ্কা, নারকেল কোরা,  হলুদ,  জিরে গুঁড়ো,  সাদা জিরে,  হলুদ গুঁড়ো,  ধনে গুঁড়ো,  জায়ফল ও জয়িত্রি গুঁড়ো,  কাশ্মীরি লঙ্কা গুঁড়ো, গরম মশলা,  ঘি ও সাদা তেল,  অল্প খোয়াক্ষীর।

[বৃষ্টির দুপুরে সাদা ভাতের সঙ্গে পালং ইলিশ, ফাটাফাটি যুগলবন্দি]

[সন্ধ্যার স্ন্যাকসে বাড়িতেই তৈরি করুন মুচমুচে ফিশ ফিঙ্গার]

কীভাবে বানাবেন:  থোড় সরু সরু করে কেটে নুন ও হলুদ জলে ভিজিয়ে রাখতে হবে। পরে থোড় সেদ্ধ করে নিন। কড়াইতে সমপরিমাণ তেল ও ঘি গরম করে গোটা গরম মশলা ও সাদা জিরে ফোড়ন দিন। ফোড়নের গন্ধ বেরতে শুরু করলে কাজু ও কিশমিশ দিয়ে দিন। একে একে আদা বাটা, কাঁচালঙ্কা চেরা,  জিরে গুঁড়ো,  ধনে গুঁড়ো, হলুদ,  নুন দিয়ে ভালভাবে কষান। নারকেল কোরা দিন। এই সময় ভেজানো চালটাও দিয়ে দিন। এবার থোড় দিয়ে মিশিয়ে খুব ভাল করে কষান। অল্প জলের ছিটে দিন এবং আঁচ কমিয়ে রান্না করুন। চাল সেদ্ধ হয়ে গেলেই রান্না রেডি। আঁচ থেকে নামিয়ে অল্প নারকেল কোরা আর খোয়াক্ষীর ছড়িয়ে পরিবেশন করুন।

[বর্ষার আবহে বাড়িতেই তৈরি করে ফেলুন কাঁঠালের বীজ দিয়ে শুঁটকি]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement