BREAKING NEWS

১৪ ফাল্গুন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

টয়ট্রেনের দোসর এসি বাস, পর্যটকদের সুবিধায় নয়া ব্যবস্থা পাহাড়ে

Published by: Sayani Sen |    Posted: October 12, 2018 9:31 pm|    Updated: October 12, 2018 9:31 pm

An Images

সংগ্রাম সিংহরায়, শিলিগুড়ি: পর্যটকদের জন্য সুখবর। পাহাড়ের পথে বাতানুকূল টয়ট্রেনের পর এবার বাতানুকূল বাস পরিষেবাও।সিসি ক্যামেরা এবং জিপিএস পরিষেবায় যুক্ত সুসংহত পরিবহণ ব্যবস্থায় ওই বাস পরিষেবা ইতিমধ্যেই চালু করেছে সিকিম ন্যাশনালাইজড ট্রান্সপোর্ট বা এসএনটি। শিলিগুড়ি-গ্যাংটক রুট-সহ ওই বাতানুকূল বিলাসবহুল বাস পরিষেবা অারও চারটি জায়গায় চালু হয়েছে। পর্যটকদের স্বাচ্ছন্দ্য এবং সুবিধার কথা মাথায় রেখে গ্যাংটক থেকে পশ্চিম সিকিমের পেলিং, দক্ষিণ সিকিমের ঐতিহাসিক স্থান ভায়া চারধাম হয়ে নামচি এবং পূর্ব সিকিমের প্যাকিং বিমানবন্দর পর্যন্ত ওই বাতানুকূল বাস পরিষেবা চালু করেছে সিকিম সরকার। সিকিমের প্রধান পরিবহণ সচিব এসবিএস বাদুড়িয়া জানিয়েছেন, উন্নতমানের ওই বাসের এক একটির জন্য খরচ হয়েছে ৩০ লক্ষ টাকা। অাপাতত চারটি বাস অানা হয়েছে। শীঘ্রই অারও ছয়টি বাস অানা হবে।

[শহুরে কোলাহলের বাইরে কাটাতে চান পুজো? গন্তব্য হোক তুরিয়ক মামরিং]

এসএনটি সূত্রে খবর, দু’দিন অাগেই গ্যাংটক থেকে ওই বাস পরিষেবা চালু হয়। এদিকে সিকিমের লাইফ লাইন দশ নম্বর জাতীয় সড়ক এখন পুরোপুরি স্বাভাবিক। কিছুদিন অাগে রম্ভির কাছে ধস নেমে ১০ নম্বর জাতীয় সড়কে ধসে অবরুদ্ধ হয়। ফলে ধসে তিস্তা গর্ভে চলে যায় জাতীয় সড়কের একাংশ। রাত জেগে পাহাড় কেটে ওই রাস্তা সংস্কার করেন পূর্ত কর্মীরা। তবে এখন পরিস্থিতি পুরোপুরি স্বাভাবিক। পর্যটকরাও পুজোর ছুটি কাটাতে পাহাড়ে অাসছেন। সিকিমেও যাচ্ছেন। পুজোর মুখে সিকিম সরকারের এই পরিষেবা চালু হওয়ায় পর্যটকদের সুবিধা হবে বলে মনে করছেন পর্যটন ব্যবসায়ীরা। কিছুদিন অাগেই সিকিমের প্যাকিয়ংয়ে চালু হয় গ্রিন ফিল্ড বিমানবন্দর। সেখান থেকে বাণিজ্যিকভাবে উড়ানও চালু হয়েছে। এবার সেই বিমানবন্দরে এসি বাসে পৌঁছনোর ব্যবস্থা সহ গ্যাংটক-শিলিগুড়ির পথে এবার এসি বাসে চড়েই প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করার সুযোগ পর্যটকদের। এর ফলে পর্যটদের সুবিধা হবে বলে জানা গিয়েছে।

An Images
An Images
An Images An Images