২১ চৈত্র  ১৪২৬  শনিবার ৪ এপ্রিল ২০২০ 

Advertisement

ভ্রমণপ্রেমীদের জন্য দারুণ খবর, এবার ভিসা ছাড়াই ঘোরা যাবে মালয়েশিয়া

Published by: Sulaya Singha |    Posted: January 1, 2020 8:11 pm|    Updated: January 1, 2020 8:12 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পুজোর ছুটি কিংবা বছরের শেষে অনেক ভ্রমণপিপাসুই বিদেশ ভ্রমণের প্ল্যান করেন। ব্যাগ কাঁধে নতুন কোনও দেশের উদ্দেশে পাড়ি দেন অনেকেই। কিন্তু সমস্যা হয় ভিসা নিয়ে। টিকিট কেটে শেষ মুহূর্তে শুধুমাত্র ভিসা সমস্যার জন্য ট্যুর বাতিলই করে দিতে হয়। কিন্তু নতুন বছরে যাঁরা মালয়েশিয়া যাওয়ার প্ল্যান করছেন, তাঁদের অন্তত এমন সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে না। কারণ ২০২০-এ ভারতীয়রা ভিসা ছাড়াই ঘুরে আসতে পারবেন এই সুন্দর এই দেশে।

এই বছর ভিসা ছাড়া শুধুমাত্র ইলেকট্রনিক ট্রাভেল রেজিস্ট্রেশন এবং ইনফরমেশন সিস্টেমের মাধ্যমেই ১৫ দিনের জন্য ঘুরে আসা যাবে মালয়েশিয়া। ট্রাভেল সংস্থার সাহায্য নিয়ে অথবা নিজেই এই প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করা যাবে। কিন্তু মালয়েশিয়ার নির্দিষ্ট কিছু বিমানবন্দর অথবা প্রবেশ পথ দিয়ে সে দেশে গেলে তবেই এই নিয়ম প্রযোজ্য হবে। তবে পর্যটকদেরই দায়িত্ব নিয়ে গোটা প্রক্রিয়াটি করতে হবে। ভিসা থেকে ঝঞ্ঝাট মুক্ত হওয়ার জন্য এটুকু তো করা যেতেই পারে। তাই না? এবার প্রশ্ন হল ভিসা ছাড়া মালয়েশিয়ায় পা রাখতে কী কী কাগজপত্র প্রয়োজন।

malaysia

[আরও পড়ুন: হাতিকে নিজে স্নান করাতে চান? নতুন বছরে সুযোগ মিলবে এখানে]

এক অনলাইন সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, সফরকারীকে নিজের প্রয়োজনীয় পরিচয়পত্র সঙ্গে রাখতে হবে। সেই সঙ্গে মালয়েশিয়ার কোথায় কোথায় ঘুরবেন, তার তালিকা এবং পর্যাপ্ত অর্থ থাকতে হবে। কারণ কর্তৃপক্ষের কাছে প্রমাণ করতে হবে যে আপনি ঘুরতেই এসেছেন এবং আপনার কাছে ভ্রমণের জন্য যথেষ্ট অর্থ রয়েছে। সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ হল, আপনার সঙ্গে অবশ্যই যেন ফেরার টিকিট থাকে। তবে রেজিস্ট্রেশনের প্রক্রিয়াটি মালয়েশিয়া যাওয়ার তিনমাস আগে করে রাখতে হবে। তবে একটা সমস্যা রয়েছে। কোনও কারণে যদি ১৫ দিনের বেশি সে দেশে থাকতে চান, তাহলে কিন্তু মুশকিল। কারণ ১৯৬৩ ইমিগ্রেশন রেগুলেশন অনুযায়ী, এক্ষেত্রে নির্ধারিত দিনের চেয়ে বেশি থাকার আবেদন করা যাবে না।

Malaysia

পর্যটনে জোর দিতেই এমন অভিনব উদ্যোগ নিয়েছে মালয়েশিয়া সরকার। আর ভারতীয়রা যে কতটা ভ্রমণপ্রেমী, তা তো নতুন করে বলার প্রয়োজন নেই। সেই জন্যই এই সুবিধা ভারতীয়দের জন্য চালু করা হয়েছে। ভারতের পাশাপাশি চিনের ক্ষেত্রেও এই নিয়ম প্রযোজ্য হয়েছে। তাহলে আর দেরি কেন, চলতি বছর মন ভাল করা কোয়ালালামপুর কিংবা মালাক্কা ঘুরে আসার প্ল্যান করে ফেলতেই পারেন।

[আরও পড়ুন: বুলবুলে ক্ষতিগ্রস্ত রবিঠাকুরের স্মৃতি বিজড়িত সুন্দরবনের বাংলো, হতাশ পর্যটকরা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement