BREAKING NEWS

২৩ চৈত্র  ১৪২৬  সোমবার ৬ এপ্রিল ২০২০ 

Advertisement

নজরে বাল্ক মেসেজ, মাসে ২০ লক্ষ অ্যাকাউন্ট বন্ধ করছে হোয়াটসঅ্যাপ

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: February 8, 2019 2:06 pm|    Updated: February 8, 2019 2:06 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একসঙ্গে একাধিক ব্যক্তিকে হোয়াটসঅ্যাপ বার্তা বা বাল্ক মেসেজ পাঠানো অ্যাকাউন্টে নজরদারি চালাচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপ। আর তার ভিত্তিতেই প্রতিমাসে ২০ লক্ষ হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট বন্ধ করছে তারা। ভারতে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে গুজব জনিত সমস্যা যাতে কোনও বড় গন্ডগোল না বাধায় তারই সতর্কীকরণ ব্যবস্থা হিসাবে করা হচ্ছে এই পদক্ষেপ বলে জানিয়েছে ফেসবুক মালিকানাধীন চ্যাটিং অ্যাপ্লিকেশন হোয়াটসঅ্যাপ।

[জানেন কি, চলতি মাসেই আপনার স্মার্টফোনে যুক্ত হতে পারে নতুন ফিচার?]

জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যেই  অসংখ্য অ্যাকাউন্টের বাল্ক মেসেজ রেজিস্ট্রেশন আটকে দিয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ। ২০ শতাংশ অ্যাকাউন্ট আবার রেজিস্ট্রেশনের সময়েই আটকে দেওয়া হয়েছে। এরমধ্যে এমন নম্বর এবং কম্পিউটার নেটওয়ার্কও রয়েছে যা আগে সন্দেহজনক কাজকর্মের জন্য চিহ্নিত হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপের সিকিউরিটি সিস্টেমে। হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, নতুন অ্যাকাউন্টের জন্য এই নম্বর বা কম্পিউটার নেটওয়ার্ক থেকে রেজিস্ট্রেশনের পর একটিও বার্তা পাঠাতে দেওয়া হয়নি। তার আগেই বাতিল করে দিয়েছে ওই অ্যাকাউন্ট রেজিস্ট্রেশন। ভারতে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করেন প্রায় ২০ কোটি মানুষ। তাই এদেশের হোয়াটসঅ্যাপ যাতে সমস্যার কারণ না হয়, সে বিষয়ে সতর্ক এই চ্যাটিং অ্যাপস কর্তৃপক্ষ। অভিযোগ জানানোর একটি সেলও তৈরি করেছে তারা। যেখানে গ্রিভান্স অফিসারকে সরাসরি যোগাযোগ করতে পারবেন হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারী। জানাতে পারবেন অভিযোগ। এছাড়াও ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচন প্রসঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপ জানিয়েছে, সতর্কতা ব্যবস্থার এই কাজ আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য ভারতের নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে একসঙ্গে কাজ করবে তারা।

এদিকে আবার ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ব্যবহারকারীদের কতটা ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করতে পারে, তা নিয়ন্ত্রণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জার্মানি। নতুন নিয়ম চালু করছে সেদেশের সরকার। যা চালু হলে ভবিষ্যতে ফেসবুকের সঙ্গে আর শর্ত সাপেক্ষে কোনও ব্যক্তিগত তথ্য ব্যবহারের চুক্তিতে রাজি হতে বাধ্য থাকতে হবে না ইউজারদের। বরং কোন কোন ক্ষেত্রে ওই তথ্য ব্যবহার করা হবে তার বিশদ বিবরণ চেয়ে প্রত্যেকটি ক্ষেত্রে ফেসবুক কর্তৃপক্ষকেই ব্যবহারকারীর কাছ থেকে অনুমতি  নিতে হবে।

[ মোবাইলে কীভাবে সুরক্ষিত রাখবেন ব্যক্তিগত তথ্য? রইল টিপস]

Advertisement

Advertisement

Advertisement