২ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২০ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২০ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আগেই পর্নসাইটের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে নয়াদিল্লি৷ এদেশে বন্ধ হয়েছে ৮২৭টি পর্ন সাইট। যার জেরে অলীক সুখ থেকে বঞ্চিত হতে হয়েছে ভারতের লক্ষ লক্ষ পর্নপ্রেমীকে। তবে শুধু পর্নপ্রেমীরাই নন, বঞ্চিতদের তালিকায় এবার যুক্ত হয়েছে ইউটিউব প্রেমীরাও৷ কারণ, এবার চারশোটিরও বেশি চ্যানেলকে বন্ধ করল সংস্থাটি৷ অভিযোগ, সাধারণ ভিডিও-র নামে চ্যানেলগুলিতে শিশুদের শোষণের ভিডিও দেখানো হত বা চাইল্ড পর্নগ্রাফি দেখানো হত৷

[মনের কথা প্রিয়জনকে বলতে ভয়? মুশকিল আসান করবে রোবট ‘ঘটক’ ]

ইউটিউবে একাধিক সংস্থা তাঁদের বিজ্ঞাপনের ভিডিও আপলোড করেন৷ সেই বিজ্ঞাপনে বিভিন্ন ভাবে শিশুদের ব্যবহার করা হয়৷ সূত্রের খবর, এই বিষয়টিকেই শিশুদের উপর শোষণ বলে নয়া টার্মস অ্যান্ড কন্ডিশনে যুক্ত করেছে ইউটিউব৷ এমনকী, এই চ্যানেলগুলির বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগও জমা পড়েছে সংস্থার কাছে৷ এবং সমস্ত অভিযোগ খতিয়ে দেখে চ্যানেলগুলিকে বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংস্থাটি৷ ইউটিউব জানিয়েছে, শিশুদের নিরাপত্তা রক্ষার্থেই তাঁদের এই সিদ্ধান্ত৷ ভবিষ্যতে ভিডিও-র ক্ষেত্রে আরও বেশি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হতে পারে বলেও ইঙ্গিত দিয়েছে ইউটিউব৷ সূত্রের খবর, ইউটিউবের নজরে রয়েছে নেসলে, ডিজনি, ম্যাকডোনাল্ডের মতো সংস্থা৷

[ডিজিটাল যুগে ‘উন্মুক্ত ভাষা’র জনক মেহেদি হাসান আজও স্বীকৃতি পেলেন না]

এই বিষয়ে ইউটিউবের অন্যতম স্রষ্টা ম্যাট ওয়াটসন জানিয়েছেন, এই প্ল্যাটফর্মকে ব্যবহার করে যাতে যৌনতা বা শিশুশ্রমের প্রচার না করা যায়, সেদিকে সজাগ দৃষ্টি করেছে৷ এই নজরদারির ক্ষেত্রে বিশেষ প্রযুক্তির সাহায্য নিচ্ছে সংস্থা৷ ভিডিও-র কমেন্ট সেকশনেও যেন কেউ যৌন সুড়সুড়ি দেওয়া মন্তব্য করতে না পারেন, সেদিকেও নজর রাখা হবে৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং