২৬ কার্তিক  ১৪২৬  বুধবার ১৩ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অটো চড়েছেন নিশ্চয়ই? ভাড়া হিসাবে কত টাকা দিয়েছেন? ১০, ১৫ বা খুব বেশি হলে ২৫ টাকা। কিংবা ধরুন অন্য রাজ্যে কোথাও গেলে ২৫০-৩০০টাকা। কিন্তু মাত্র ১৫ কিলোমিটার যাওয়ার জন্য ৪ হাজার ৩০০টাকা? ভাড়া শুনে অবাক লাগছে তো? ভাবছেন অটো চড়ে যেতে আবার হাজার-হাজার টাকা খরচ হয় নাকি? আপনি অবাক হলেও এটাই সত্যি। বেঙ্গালুরুর বাসিন্দা এক ইঞ্জিনিয়ারের অভিজ্ঞতার কথা জানলে আপনি আরও অবাক হবেন।

[আরও পড়ুন: বিচার চাই, থানার সামনে শাবক নিয়ে ধরনায় একদল হনুমান]

চাকরি সূত্রে বেঙ্গালুরুতেই থাকেন ওই ইঞ্জিনিয়ার। তাঁর অফিস পুনেতে। গত ১৮ সেপ্টেম্বর সকালে অফিস যাওয়ার পথে কাটরাজে বাস থেকে নামেন তিনি। ক্যাব বুক করার চেষ্টা করেন। তবে সেই উদ্যোগ কোনও কাজে লাগেনি। এরপর তিনি সিদ্ধান্ত নেন অটোয় চড়েই অফিসে যাবেন। সেই অনুযায়ী অটো ধরেন ওই ইঞ্জিনিয়ার। প্রায় ৪৫ মিনিটের মধ্যেই গন্তব্যে পৌঁছে যান তিনি। অটো থেকে নেমে ভাড়া শুনে নিজের কানকেও বিশ্বাস করতে পারেননি ওই ইঞ্জিনিয়ার। অটোচালক বলেন ভাড়া হিসাবে ৪ হাজার ৩০০ টাকা দিতে হবে তাঁকে। তবে ওই ইঞ্জিনিয়ার অটোচালকের দাবি মেটাতে অস্বীকার করেন। মাত্র ৪৫ মিনিট অটো চড়ার জন্য এত টাকা দেবেন না বলেই সাফ জানিয়ে দিয়েছেন ওই ইঞ্জিনিয়ার। এই নিয়ে বাদানুবাদ শুরু হয়ে যায় দু’জনের। অবশেষে অটোচালকের সাফাই তাঁকে শহরের বাইরে অটো চালানোর জন্য ৬০০ টাকা দিতে হয়। তাই যাত্রীদের কাছ থেকে বাধ্য হয়েই বেশি টাকা চান তিনি। একথা শোনার পরে যদিও কিছুটা হলেও মাথা ঠান্ডা হয় ওই ব্যক্তির। তাই তিনি অটোচালককে টাকা মিটিয়ে দেবেন বলেই জানান। সেই অনুযায়ী ভাড়া মিটিয়ে দিয়েই এলাকা ছাড়েন ওই ব্যক্তি।

[আরও পড়ুন: শিশুকে চুমু খাচ্ছে বিশালাকার সাপ! ভাইরাল ভিডিও দেখে গায়ে কাঁটা নেটিজেনদের]

তবে এতেই ঘটনার শেষ নয়। এরপর সোজা পুলিশের দ্বারস্থ হন ওই প্রতারিত অটো যাত্রী। অটোচালকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। অভিযোগ জমা নেওয়ার সময় ভাড়ার পরিমাণ শুনে অবাক হয়ে যান পুলিশকর্মীরাও।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং