১২ মাঘ  ১৪২৯  শুক্রবার ২৭ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

ভারচুয়াল শুনানি চলাকালীন বিছানায় অর্ধনগ্ন, সঙ্গে সুখটান, বরখাস্ত মহিলা বিচারপতি

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: November 28, 2022 2:49 pm|    Updated: November 28, 2022 4:42 pm

A Colombian Judge Suspended after Smokes in Bed Half-Naked During Hearing on Zoom Call| Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আইনশৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্ব যাঁর, সেই বিচারপতির আচরণে চক্ষু চড়কগাছ সকলের। ভারচুয়াল শুনানি চলাকালীন বিছানায় অর্ধনগ্ন অবস্থায় দেখা গেল একজন মহিলা বিচারপতিকে। এমনকী ধূমপান করতেও দেখা গিয়েছে তাঁকে। কলম্বিয়ার এক বিচারপতির (Colombia Judge) এই আচরণে শোরগোল পড়ে গিয়েছে সেদেশে। বছর ৩৪-এর বিচারপতিকে ৩ মাসের জন্য বরখাস্ত করেছে শৃঙ্খলারক্ষ কমিটি। যদিও যাবতীয় অভিযোগে সাফাই দিয়েছেন বিচারপতি। 

কলম্বিয়ার ওই আদালতে একটি মামলায় ভারচুয়াল শুননি (Virtual Hearing) চলছিল সেই সময়। ভারচুয়াল হলেও নির্দিষ্ট নিয়ম মেনে চলতে হয় বিচারপতি বা আইনজীবিদের। এমনকী তাঁদের রয়েছে নির্দিষ্ট পোশাক। যদিও কোনও কিছুর পরোয়া করেননি অভিযুক্ত মহিলা বিচারপতি ভিভিয়ান পোলানিয়া (Vivian Polania), এমনটাই অভিযোগ। জুম কলে ওই শুনানি চলাকালীন স্বল্পবাসে বিছানায় শুয়েছিলেন মহিলা বিচারপতি। এইসঙ্গে তাঁকে মাঝেমাঝে সুখটান দিতে দেখা যায়। ঝিমোচ্ছিলেন তিনি। এই অবস্থাতেই প্রশ্নোত্তর পর্ব চালান তিনি। স্বভাবতই গোটা ঘটনায় হতবাক হন আইনজীবীরা।

[আরও পড়ুন: গরু পাচার মামলা: এবার ইডির স্ক্যানারে রাজ্যের ৫ আইপিএস, ডিসেম্বরেই দিল্লিতে তলব]

জানা গিয়েছে, মহিলা বিচারপতির এই কাণ্ডের ভিডিও নেটমাধ্যমে ভাইরাল হয়। যা নিয়ে খবর করে সংবাদসংস্থা ইনডিপেনডেন্ট। এর পরেই সংবাদমাধ্যমে ঝড় তোলে মহিলা বিচারপতির কাণ্ড। যার পর নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। অভিযুক্ত ভিভিয়ান পোলানিয়ার বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করে শৃঙ্খলারক্ষা কমিটি। ওই কমিটি তাঁকে ৩ মাসের জন্য বরখাস্ত করেছে। ফলে ফেব্রুয়ারি মাস অবধি বেতন পাবেন না তিনি। যদিও বিতর্কের সঙ্গে ভিভিয়ান বহুদিন ধরে ঘর করছেন বলে জানা গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: মহিলাদের পোশাক নিয়ে অশালীন মন্তব্য রামদেবের, মঞ্চে বসে হাসি ফড়নবিসের স্ত্রীর, নিন্দা নেটদুনিয়ায়]

এর আগেও একাধিক বার আদালত অবমাননাকর কাজ করেছেন ভিভিয়ান পোলানিয়া। যদিও অভিযুক্ত মহিলা বিচারপতির দাবি, ঘটনার সময় তিনি মানসিক ভাবে অস্থীর ছিলেন। শরীরে রক্তচাপ কমে গিয়েছিল। সব মিলিয়ে অসুস্থ বোধ করছিলেন। ফলে ভুল করে ওই কাণ্ড করে বসেন। তবে কাজের প্রতি তিনি দায়বদ্ধ ছিলেন বলেই দাবি করেছেন। তাঁর আরও অভিযোগ, এর আগে সহকর্মীদের দ্বারা উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে হেনস্তার শিকার হয়েছেন তিনি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে