BREAKING NEWS

২২  মাঘ  ১৪২৯  সোমবার ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

মহিলাদের পোশাক নিয়ে অশালীন মন্তব্য রামদেবের, মঞ্চে বসে হাসি ফড়নবিসের স্ত্রীর, নিন্দা নেটদুনিয়ায়

Published by: Anwesha Adhikary |    Posted: November 28, 2022 2:18 pm|    Updated: November 28, 2022 2:36 pm

Ramdev apologizes on his derogatory comment about women, question on fasnavis' wife | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পোশাক ছাড়া মেয়েদের দেখতে ভালোই লাগে, একটি অনুষ্ঠানে গিয়ে এই বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন যোগগুরু রামদেব (Ramdev)। তাঁর এই বক্তব্যের ভিডিও ভাইরাল হতেই নিন্দায় সরব হয়ে ওঠেন নেটিজেনরা। মহিলাদের অসম্মান করার অভিযোগ আনা হয় তাঁর বিরুদ্ধে। রামদেবের বিরুদ্ধে নোটিস জারি করে মহারাষ্ট্রের মহিলা কমিশন। তারপরেই ক্ষমা চেয়েছেন যোগগুরু। প্রসঙ্গত, একাধিকবার বিতর্কিত মন্তব্য করে খবরের শিরোনামে উঠে এসেছেন রামদেব।

শুক্রবার মুম্বইয়ে (Mumbai) পতঞ্জলির যোগপীঠের আয়োজনে শুধুমাত্র মহিলাদের জন্য বিনামূল্যের একটি যোগ প্রশিক্ষণ শিবিরে ছিলেন রামদেব। ‘মুম্বই মহিলা পতঞ্জলী যোগ স্মৃতি’র অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী একনাথ শিণ্ডের ছেলে শিবসেনা সাংসদ শ্রীকান্ত শিণ্ডে, মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) বর্তমান উপমুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিশের স্ত্রী তথা গায়িকা অম্রুতা ফড়নবিশ-সহ বিজেপির (BJP)বেশ কয়েক জন নেতা। সকল অতিথির সামনেই রামদেব বিতর্কিত মন্তব্য করেন। তিনি বলেন,”শাড়ি পরলে মেয়েদের ভাল লাগে। সালোয়ার-কামিজ পরলে ভাল লাগে মেয়েদের। আমার তো মনে হয় কিছু না পরলেও মেয়েদের দেখতে ভাল লাগে।”

[আরও পড়ুন: গুপকর রোডের বাংলোর পর সরকারি কোয়ার্টারও ছাড়তে হবে মেহবুবাকে, নয়া বিতর্ক কাশ্মীরে]

এই বক্তব্যের ভিডিও হুহু করে ছড়িয়ে পড়ে। দেখা যায়, রামদেবের এই কথা শুনে মঞ্চে বসেই মুচকি মুচকি হাসছেন অম্রুতা। রাজ্যের উপমুখ্যমন্ত্রীর স্ত্রী মহিলাদের অসম্মানজনক মন্তব্যে কেন হাসছেন, তা নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রশ্ন উঠেছে। মঞ্চে উপস্থিত মহিলা হিসাবে কেন এহেন মন্তব্যের প্রতিবাদ করেননি অম্রুতা, নেটদুনিয়ায় ঘোরাফেরা করছে সেই প্রশ্নও। মহারাষ্ট্রের মহিলা কমিশনের তরফে রামদেবকে নোটিস পাঠানো হয়। বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য দু’দিনের মধ্যে জবাব তলব করা হয় যোগগুরুর কাছে। সোমবার ক্ষমা চেয়ে মহিলা কমিশনের কাছে চিঠি দিয়েছেন রামদেব

ক্ষমা প্রার্থনার চিঠি টুইট করেছে মহারাষ্ট্রের মহিলা কমিশন। রামদেব লিখেছেন, ” বরাবর মহিলাদের ক্ষমতায়নের জন্য কাজ করেছি। সমাজে মাথা উঁচু করে সম্মানের সঙ্গে মেয়েরা বাঁচতে পারবেন, আমি সেটাই চাই। বেটি বাঁচাও, বেটি পড়াও উদ্যোগে সমর্থন করেছি। এখান থেকেই পরিষ্কার, মেয়েদের অসম্মান করা আমার উদ্দেশ্য ছিল না। আমার কথায় যদি কারোওর খারাপ লেগে থাকে, সেজন্য আমি অত্যন্ত দুঃখিত। সকলের কাছে আমি ক্ষমা চাইছি।”

[আরও পড়ুন:পরকীয়া সন্দেহে খুন দিল্লিতে, স্বামীর দেহ ২২ টুকরো করে ফ্রিজে ভরল স্ত্রী-ছেলে!]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে