BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

শখের বাইকেই লুকিয়ে মৃত্যুদূত! স্টার্ট দিতেই বেড়িয়ে এল কিং কোবরা

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: May 10, 2020 2:09 pm|    Updated: May 10, 2020 2:09 pm

An Images

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: টানা ৪৬ দিন লকডাউন। স্বাভাবিকভাবেই শখের মোটরবাইকটি দীর্ঘদিন ঘর থেকে বার করতে পারেননি বাঘমুন্ডির লীলাকুমার মাঝি। আর সেই সুযোগেই মোটরবাইকে বাসা বাঁধে চার ফুটের কিং কোবরা! পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে লীলাবাবু সেই বাইক স্টার্ট দিতেই হেডলাইটের পেছন থেকে ফোঁস করে ওঠে বিষধর। নজরে পড়তেই বাইক ফেলে চিল চিৎকার শুরু করেন ওই ব্যক্তি। শেষমেষ বনদপ্তরের আধিকারিকরা গিয়ে সেই সাপটিকে উদ্ধার করে। বিকেল বাড়েরিয়ার জঙ্গলে ছেড়ে দেওয়া হয় সাপটিকে।

কিন্তু এখনও বিষধরের আতঙ্ক যেন কাটছেই না ওই মোটরবাইকের মালিকের। নিজের শখের বাইক দেখলেই ভয়ে শিউরে উঠছেন তিনি। সেচ বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত কর্মী লীলাকুমার মাঝি বলেন, “বাইক নিয়ে রাস্তায় বেরিয়ে গেলে কী যে হত কে জানে! এক ছোবলেই হয়তো শেষ হয়ে যেত প্রাণ। মা মনসার কৃপা বেঁচে গিয়েছি। বাইকের হেডলাইটের পেছন দিকে বিষধরটি লুকিয়ে ছিল।”

snake

[আরও পড়ুন: ফের ভিনরাজ্যে মৃত্যু পরিযায়ী শ্রমিকের, বাড়ি ফিরতে না পারায় বাড়ছিল মানসিক চাপ]

মোটরবাইকের ভেতরে এমন কিং কোবরা দেখে চোখ কপালে উঠে গিয়েছে বনদপ্তরেরও। গোখরো সাপ যে সেখানে কিভাবে ঢুকল তা বুঝতে পারছেন না তাঁরা। বাঘমুন্ডি বনাঞ্চলের আধিকারিক মনোজ কুমার মল্ল বলেন, “এই লকডাউনে যে আর কী কী দেখতে হবে কে জানে! কপাল ভাল উনি বেঁচে গিয়েছেন। সাপটি প্রায় চার ফুট লম্বা ছিল। একে আমরা স্পেকটেকলড কোবরা বলি। উদ্ধারের পর কিছুক্ষণ পর্যবেক্ষণে রেখে জঙ্গলে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।”

ছবি: অমিত সিংদেও

[আরও পড়ুন: নেপাল-বাংলাদেশে আটকে ভারতীয়রা, ফেরাতে উদ্যোগ পাহাড়ের বিজেপি নেতৃত্বের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement