BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

স্ত্রীকে বাঁচাতে জলে নেমে হাঙরের সঙ্গে লড়াই, প্রকৃত ‘হিরো’র পরিচয় দিলেন এই অজি যুবক

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: August 16, 2020 7:58 pm|    Updated: August 16, 2020 7:58 pm

An Images

‌সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ স্ত্রীর প্রতি অগাধ ভালবাসা। আর সেই ভালবাসাকে বাঁচাতে প্রাণঘাতী হাঙরের (Shark) সঙ্গে লড়াই করলেন মার্ক র‌্যাপলে নামে এক অস্ট্রেলিয় ব্যক্তি। সাক্ষাৎ যমের হাতকে স্ত্রীকে বাঁচাতে ঘুষিও মারেন গ্রেট হোয়াইট প্রজাতির হাঙরটিকে। সম্প্রতি খবরটি প্রকাশিত হয়েছে সিডনি মর্নিং হেরাল্ডে। আর তা প্রকাশ্যে আসতেই ‘‌হিরো’‌ তকমা পেয়েছেন তিনি।

[আরও পড়ুন: কাদায় বসে শঙ্খ বাজালেই ‘পালাবে’ করোনা! আজব দাবি বিজেপি সাংসদের]

জানা গিয়েছে, গত শনিবার সকালে নিউ সাউথ ওয়েলসের (New South Wales) পোর্ট ম্যাকয়রির একটি বিচে সার্ফিং করছিলেন বছর পঁয়ত্রিশের শ্যান্টেল ডয়েল। সঙ্গে ছিলেন তাঁর স্বামী মার্কও। এমন সময়ে শ্যান্টেল নিজের পায়ে কিছুটা যন্ত্রণা অনুভব করেন। সার্ফিং করতে করতেই দেখতে পান, তার পায়ে কামড়ের দাগ। তখনই তাঁদের বুঝতে বাকি থাকে না যে তাঁরা হাঙরের আক্রমণের মুখে পড়েছেন। এরপরই জলে নেমে পড়েন মার্ক। স্ত্রীকে বাঁচাতে নিজের জীবন বিপন্ন করেই প্রায় ১০ ফুট লম্বা হাঙরটির মুখে সমানে ঘুসি মারতে থাকেন। শেষপর্যন্ত রণে ভঙ্গ দিয়ে পালায় হাঙরটি। এরপরই স্ত্রীকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসাও করান মার্ক।

[আরও পড়ুন: সুপারউওম্যান! ৬০ সেকেন্ডে অনন্য নজির গড়ে গিনেস বুকে নাম তুললেন এই মহিলা]

ঘটনার এক প্রত্যক্ষদর্শী জানান, ওই ব্যক্তি নিজের জীবন বিপন্ন করে স্ত্রীকে বাঁচাতে হাঙরটির মুখোমুখি হন। ওই ব্যক্তিই আসল ‘‌হিরো’‌, নাহলে অত বড় হাঙরের সঙ্গে লড়াই করা মুখের কথা নয়। যদিও এত কৃতিত্ব নিতে নারাজ মার্ক। পরে তিনি বলেন, ‘‌‘‌আমার জায়গায় আর কেউ থাকলেও একই কাজ করত।’‌’ অবশ্য খবরটি জানতে পেরে অনেকেই তাঁকে ‘‌হিরো’‌ আখ্যা দিয়েছেন।‌ অনেকেই তাঁর প্রশংসাও করেছেন।‌ অস্ট্রেলিয়ার (Australia) সমুদ্র সৈকতগুলোতে প্রায়ই এই ধরনের ঘটনা ঘটে। সমুদ্রের পাড়ে ঘুরতে এসে বা সার্ফিং করার সময় মাঝেমধ্যেই হাঙরের আক্রমণের শিকার হতে হয় সাধারণ মানুষকে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement