BREAKING NEWS

২৪  মাঘ  ১৪২৯  বুধবার ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

বিয়ের সাজ মাটি! মেক আপ আর্টিস্টের বিরুদ্ধে পুলিশের দ্বারস্থ হবু কনে

Published by: Sayani Sen |    Posted: December 8, 2022 10:50 am|    Updated: December 8, 2022 10:51 am

Beautician booked after her assistant allegedly spoilt the make-up of Jabalpur bride । Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিয়ে নিয়ে যেকোনও তরুণীই নানা স্বপ্নের জাল বোনেন। কী পরবেন, কেমন সাজবেন, তা নিয়ে ভাবনাচিন্তার যেন শেষ থাকে না। আর হবে না-ই বা কেন, জীবনের বিশেষ দিন বলে কথা! সেদিনের সাজই মাটি হয়ে গেলে, কে-ই বা মাথার ঠিক রাখতে পারেন। ঠিক যেমন পারেননি মধ্যপ্রদেশের জব্বলপুরের তরুণী। সাজগোজ ঠিকমতো না করানোর অভিযোগে সটান থানায় হাজির কনের পরিবার। অভিযোগ শুনে হতবাক পুলিশ।

গত ৩ ডিসেম্বর, মধ্যপ্রদেশের ঘামাপুরের বাসিন্দা এক তরুণীর বিয়ে ছিল। কনের সাজগোজের জন্য কোতয়ালি বাজারের একজন মেক আপ আর্টিস্টের সঙ্গে কথা হয় হবু কনের পরিবারের লোকজনের। আগাম কিছু টাকাও ওই মেক আপ আর্টিস্টকে দেন তাঁরা। মেক আপ আর্টিস্ট আশ্বাস দেন সময়মতো কনের বাড়িতে পৌঁছবেন।

[আরও পড়ুন: ইসলামপুরে গুলিবিদ্ধ ব্যবসায়ী, ‘স্বামীকে বাঁচান’, জাতীয় সড়কের পাশে বসে আর্তনাদ স্ত্রীর]

তবে বিয়ের দিন ঘটে বিপত্তি। কনের পরিবারের দাবি, নির্দিষ্ট সময় পেরিয়ে গেলেও সাজাতে আসেননি মেক আপ আর্টিস্ট। দুশ্চিন্তায় পড়েন কনের বাড়ির লোকজন। ফোন করেন মেক আপ আর্টিস্টকে। তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দেন এই মুহূর্তে কনের বাড়িতে গিয়ে আর সাজিয়ে দেওয়া সম্ভব নয়। পার্লারে এসে সাজতে হবে বলেই জানান মেক আপ আর্টিস্ট। সেই মতো তড়িঘড়ি হবু কনে পার্লারে যান। সঙ্গে ছিলেন তাঁর মা। অভিযোগ, পার্লারে ঢোকার পর মেক আপ আর্টিস্ট কনে ও তাঁর মায়ের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন। কথা দিলেও নিজে না সাজিয়ে একজন সহযোগীকে মেক আপ আর্টিস্ট সে দায়িত্ব দিয়ে দেন বলেও অভিযোগ। কনের পরিবারের দাবি, মনের মতো সাজাতে পারেননি মেক আপ আর্টিস্টের সহযোগী।

বিয়ের সাজ খারাপ হয়ে যাওয়ায় মাথার ঠিক রাখতে পারেননি হবু বধূর পরিবারের লোকজন। সোজা থানায় যান কনের মা। মেক আপ আর্টিস্টের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানান তিনি। ভারতীয় দণ্ডবিধির ২৯৪ এবং ৫০৬ ধারায় মেক আপ আর্টিস্টের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়েছে। মেক আপ আর্টিস্টকে পাকড়াও করেছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: বেআইনি সুপারিশ পাওয়া ১৮৩’র মধ্যে কাজে যোগই দেননি ১০০ শিক্ষক! প্রকাশ্যে নয়া তথ্য]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে