১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  রবিবার ২ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সমাধি ফলকের আকার যেন হয় পেনিসের মতো! বৃদ্ধার শেষ ইচ্ছে পূরণ করল পরিবার

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: August 1, 2022 6:30 pm|    Updated: August 1, 2022 9:28 pm

Dying Wish of Mexican Woman, Tombstone Gets Big Penis Statue | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মৃত্যুর আগে অনেক মানুষই তাঁর শেষ ইচ্ছে জানান। পরিবারের লোকেরা সাধ্য মতো তা পূরণ করার চেষ্টা করেন। কিন্তু মেক্সিকোর (Mexico) এই মহিলার আজব দাবিতে চমকে যায় পরিবার। তবে তাঁর দাবি মান্যতা পায় শেষ পর্যন্ত। বৃদ্ধার ইচ্ছে মতো মৃত্যুর পর তাঁর সমাধি ফলকটিকে তৈরি করা হয়েছে বিরাট আকারের পুরুষাঙ্গের আদলে। যদিও সমাধিস্থলের ব্যতিক্রমী ওই সমাধি ফলকটিকে নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে, আপত্তি তুলছেন অনেকেই।

মেক্সিকোর বাসিন্দা ক্যাটরিনা অরদুনা পেরেজের (Catarina Orduna Perez) মৃত্যু হয় ২০২১ সালের ২০ জানুয়ারি। একটুর জন্য সেঞ্চুরি পাননি। বয়স হয়েছিল ৯৯ বছর। পরিবারের বক্তব্য, বরাবর নিজের শর্তে বেঁচেছিলেন ক্যাটরিনা। ভাবনায় ছিলেন ভীষণভাবে আধুনিক, খোলা মনের মানুষ ছিলেন। মজা করতে ভালবাসতেন। যে কারণে নিজের এলাকা মিসান্তলা টাউনের রীতিমতো জনপ্রিয় ছিলেন তিনি।

[আরও পড়ুন: সাফাই কর্মী থেকে ব্যাংকের অ্যাসিসট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজার! মহিলার লড়াই যেন রূপকথা]

ক্যাটরিনার অদ্ভূত ইচ্ছে নিয়ে তাঁর নাতি আলভারো মোতা লিমন (Alvaro Mota Limon) বলেন, “মেক্সিকোর পুরনো ধ্যান-ধারনা ভাঙতে চেয়েছিলেন আমার ঠাকুমা। অনেক কিছুই ঢাকাচাপা দেওয়া হয় এখানে, যেহেতু খোলা মনে ভাবতে জানে না সমাজ। কিন্তু সময়ের থেকে এগিয়ে ছিলেন তিনি।” এবং মৃত্যুশয্যায় ক্যাটরিনা ইচ্ছেপ্রকাশ করেন, তাঁর সমাধি ফলকটি হবে একটি বিরাট পুরুষাঙ্গের আদলে।

[আরও পড়ুন: একশোয় ১৫১, পাশ করলেন শূন্য পেয়েও! বিহার বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কশিট দেখে অবাক নেটদুনিয়া]

সেই দাবি রেখেছে পরিবার। এই বিষয়ে ফলকের স্থপতি বলেছেন, “প্রথমে ভেবেছিলাম আমার সঙ্গে মজা করা হচ্ছে বুঝি। এমন ইচ্ছে যথেষ্ট ব্যতিক্রমী।” শেষ পর্যন্ত অবশ্য তা তৈরি করেন স্থপতি। এক মাস সময় লাগে অভিনব ফলকটি তৈরি করত। তবে সমস্যা দেখা দিচ্ছে অন্য জায়গায়। সমধিস্থলে অন্য ফলকের পাশে বড্ড বেমানান লাগছে ক্যাটরিনা স্মৃতি-ফলক। অনেকেই বিরাট পুরুষাঙ্গের মতো দেখতে ওই ফলকটিকে একেবারেই মেনে নিতে পারছেন না। ফলে শুরু হয়েছে বিতর্ক। অনেকে আপত্তির কথা জানিয়েছেন স্থানীয় প্রশাসনের কাছে। ক্যাটরিনার নাতির বক্তব্য, বিষয়টি নিয়ে যে সমালোচনা হবে তা জানা ছিল। তৈরি আছি আমরা।  

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে