BREAKING NEWS

১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

১০ বোতল বিয়ার খেয়ে ১৮ ঘণ্টা প্রস্রাব চেপে রাখলেন, এ কী হাল হল ব্যক্তির!

Published by: Sulaya Singha |    Posted: June 22, 2020 7:53 pm|    Updated: June 22, 2020 7:53 pm

Man who holds urine for 18 hours, his bladder ruptures

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মদ্যপান করলে যে একটু বেশিই প্রকৃতির ডাক আসে, তা একেবারেই স্বাভাবিক। শরীরে অনেকখানি পানীয়ের প্রবেশ ঘটায় মদ খাওয়ার মাঝে পাকস্থলী খালি করতে একাধিকবার টয়লেট প্রবেশেরও প্রয়োজন পড়ে। কিন্তু যদি এই সময়ই প্রস্রাব চেপে রাখেন, তাহলে কী হবে? শরীরের যে কী মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে, তা হাড়ে হাড়ে টের পেলেন এক ব্যক্তি।

মদ্যপান হোক কিংবা অন্য কোনও সময়, প্রস্রাব চেপে রাখতে সবসময়ই বারণ করে থাকেন চিকিৎসকরা। এতে শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে পারে। কিন্তু অনেক ক্ষেত্রে আশেপাশে কোনও শৌচালয় খুঁজে না পেলে খানিকক্ষণের জন্য বাধ্য হয়েই চেপে যেতে হয়। তবে চিনা ব্যক্তি হু দু-এক ঘণ্টা নয়, টানা ১৮ ঘণ্টা প্রস্রাব না করেই রইলেন! হ্যাঁ, ঠিকই পড়েছেন। ৪০ বছরের ওই ব্যক্তি ১০ বোতল বিয়ার পান করেই ঘুমিয়ে পড়েন। মধ্যরাতে সেই যে নিদ্রা যান, পরের দিনও ঘুম আর ছাড়ে না। আর তার মাঝে একবারও টয়লেট যাননি। শেষমেশ ১৮ ঘণ্টা পর যখন উঠলেন, তখন শরীরের অনেকটা ক্ষতি হয়ে গিয়েছে। ঘুম থেকে উঠেই প্রচণ্ড পেট যন্ত্রণায় ছটফট করতে থাকেন হু।

[আরও পড়ুন: গুগলের আশীর্বাদ, লকডাউনের মাঝেই ৪০ বছর পর পরিবারকে খুঁজে পেলেন ৯৩ বছরের বৃদ্ধা]

এতটাই অসুস্থ হয়ে পড়েন যে তাঁকে হাসপাতালে ভরতি করতে হয়। পাকস্থলী স্ক্যান করা হয়। দেখা যায়, তিন জায়গায় চিড় ধরেছে। চিকিৎসকরা জানান, অতিরিক্ত চাপেই পাকস্থলীতে চিড় ধরে যায়। দ্রুত অস্ত্রোপচার না হলেও আরও বিপদ। সৌভাগ্যবশত সেই সময় হাসপাতালে তিন সার্জেন উপস্থিত ছিলেন। তাঁদের মিলিত প্রয়াসেই সফল অস্ত্রোপচার হয় হুয়ের।

চিকিৎসকরা জানান, হুকে যখন হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়, তখন তীব্র ব্যথায় কাতড়াচ্ছিলেন। এমনকী সোজা হয়ে শুয়েও থাকতে পারছিলেন না। তবে অস্ত্রোপচারের পর আপাতত অনেকটাই সুস্থ তিনি। হাসপাতাল থেকেও ছাড়া পেয়েছেন। এই ঘটনা থেকেই শিক্ষা নিচ্ছেন হু। বলছেন, আর যাই হোক, প্রস্রাব চেপে রাখার মতো ভুল আর করবেন না। আপনিও জেনে রাখলেন তো?

[আরও পড়ুন: কাদার মধ্যে ভাইয়ের সঙ্গে খেলছে গজরাজ, দেখুন ভিডিও]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে