৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  বুধবার ২২ মে ২০১৯ 

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রবাদ আছে, অভাগা যেদিকে চায়, সাগর শুকায়ে যায়। বর্তমানে মানুষের বাসস্থান সম্পর্কে এই প্রবাদই যেন সত্যি হয়ে দাঁড়িয়েছে। জনসংখ্যা বাড়ছে, বাসস্থান কমছে। তাই পৃথিবী ছেড়ে চাঁদের মাটিতে আস্তানা গাড়ার কথা ভাবছে মানুষ। সেই চাঁদও নাকি ক্রমশই ছোট হচ্ছে। অবাক হচ্ছেন তো? হ্যাঁ, সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য। 

[আরও পড়ুন: ফাঁকিবাজ মেয়েকে শায়েস্তা করতে পোষ্যকে ট্রেনিং, প্রশংসিত অভিভাবকের উদ্যোগ]

সম্প্রতি মহাকাশ গবেষণায় উঠে এসেছে, গত কয়েকশো কোটি বছরে নাকি চাঁদের আয়তন নাকি প্রায় ১৫০ ফুট কমে গিয়েছে। নাসার স্যাটেলাইট এলআরও-র পাঠানো ছবি দেখে এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন মহাকাশ বিজ্ঞানীরা। জানা গিয়েছে, মোট ১২ হাজার ছবির ওপর সমীক্ষা চালিয়েছিলেন মহাকাশ বিজ্ঞানীরা। শুধু আয়তনে ছোট হওয়াই নয়, দেখা গিয়েছে, চাঁদের উত্তর মেরুর কাছে লুনার বেসিন মারে ফ্রিগোরিস বেশ খানিকটা সরে গিয়েছে এবং এর গায়ে ফাটলও দেখা দিয়েছে। চাঁদের এই ছোট হয়ে যাওয়ার কারণ সম্পর্কে বিস্তর গবেষণাও হয়েছে। সেই গবেষণার শেষে বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, পৃথিবীর মতো চাঁদে টেকটনিক প্লেট নেই। তাই তাপ বিকিরণের মাধ্যমে চাঁদের টেকটনিক ক্রিয়াকলাপ হয়ে থাকে।

[আরও পড়ুন:  নেকড়ের খাঁচায় এ কোন প্রাণী! চিড়িয়াখানায় লোক ঠকানোর কারবার]

এইভাবে ক্রমাগত তাপ বিকিরণের ফলে পৃথিবীর একমাত্র এই উপগ্রহ ক্রমে কুঁচকে ছোট হয়ে যাচ্ছে বলে বিজ্ঞানীদের ধারণা। এই পরিবর্তনের সঙ্গে আঙুর থেকে কিশমিশ হওয়ার তুলনা টেনেছেন তাঁরা। তাঁদের ধারণা, দু’ক্ষেত্রেই একই প্রক্রিয়া আয়তনে ছোট হয় চাঁদ ও আঙুর। চাঁদের এই ছোট হয়ে যাওয়ার কথা সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে নেচার জিওসায়েন্স পত্রিকায়।

[আরও পড়ুন: OMG! প্রেমিকার আপত্তি সত্ত্বেও সেলফি তুলে এ কী বিপদ হল যুবকের]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং