৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বুধবার ২০ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হাসপাতালের বারান্দায় ঘুরে বেড়াচ্ছে হুইলচেয়ার! না, কেউ বসে নেই তাতে। কেউ হুইলচেয়ারগুলি ধাক্কাও দেননি। তাহলে? কীভাবে নিজে থেকেই এগিয়ে চলছে সেগুলি! হাসপাতালের সিসিটিভিতে ধরা পড়েছে এমনই ‘ভূতুড়ে’ কাণ্ড। আর তাতেই ছড়িয়েছে আতঙ্ক।

[আরও পড়ুন: তিন হাত, চার পা! রাজস্থানে জন্ম নিল ‘ঈশ্বরের অবতার’]

জানা গিয়েছে, চণ্ডীগড়ের পোস্ট-গ্র্যাজুয়েট ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল এডুকেশন অ্যন্ড রিসার্চে ঘটেছে এমন ঘটনা। সিসিটিভি ফুটেজ সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট হতেই তা ভাইরাল হয়ে যায়। সেখানকার এমন অলৌকিক কাণ্ড দেখে হতবাক নেটিজেনরা। ভিডিওতে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে, হাসপাতালের বারান্দায় রাখা তিনটি হুইলচেয়ারের একটি আচমকাই চলতে শুরু করল। অন্য একটি সিসিটিভি ক্যামেরায় আবার ধরা পড়েছে, আরেকটি হুইলচেয়ারের গড়িয়ে যাওয়ার দৃশ্য। রাতের আলো-আঁধারিতে এমন ‘ভূতুড়ে’ দৃশ্য দেখে অনেকেরই গায়ে কাঁটা দিতে শুরু করেছে। তবে অনেকের মতে, প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে এমন ভিডিও তৈরি করা হয়েছে। আবার অনেকে বলছেন, এর মধ্যে অলৌকিক কিছু নেই। বারান্দার যে দিকে ঢাল ছিল সেদিকেই হুইলচেয়ারটি গড়িয়ে গিয়েছে।

হাসপাতালের নিরাপত্তাকর্মী মনোজ কুমারই প্রথম গোটা ঘটনা লক্ষ্য করেন। তিনি জল নিতে বাইরে গিয়েছিলেন। তখনই দেখেন, বারান্দায় রাখা হুইলচেয়ার নিজে থেকে এগিয়ে যাচ্ছে। প্রথমটায় থতমত খেয়ে যান। পরমুহূর্তে নিজেকে সামলে নিয়ে মোবাইল বের করে সে দৃশ্য রেকর্ড করেন তিনি। এক নেটিজেন ভিডিওটি দেখার পর জানান, দীর্ঘদিন তিনি হাসপাতালে কাজ করেছেন। এমন ঘটনা আগেও দেখেছেন। আসলে হুইলচেয়ারে ব্রেক লাগানো না থাকলে তা সহজে গড়াতে পারে। তাই একটু জোরে হাওয়া দেওয়াতেই তা গড়িয়ে গিয়েছে। হাসপাতালের ওই জায়গায় টবে রাখা গাছের পাতাও নড়তে দেখা গিয়েছে। তাই এই নেটিজেনের যুক্তি অনেকেই মেনে নিয়েছেন। যদিও এখনও পর্যন্ত এর সঠিক কারণ জানা যায়নি।

[আরও পড়ুন: দেশের এই গ্রামের কোনও বাড়িতে একটিও দরজা নেই, তবু চুরি হয় না!]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং