ad
ad

Breaking News

Tortoise

গঙ্গা থেকে উঠে জিটি রোডের দিকে এগোচ্ছিল বিরল প্রজাতির কচ্ছপ! তার পর…

ওই কচ্ছপটি বিরল প্রজাতির, গঙ্গায় মাঝেমধ্যে দেখা যায়, জানাচ্ছেন পরিবেশবিজ্ঞানীরা।

Rescue of rare flap shell turtle from the Ganga River in Hooghly | Sangbad Pratidin
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:February 11, 2024 7:35 pm
  • Updated:February 11, 2024 7:40 pm

সুমন করাতি, হুগলি: রবিবারের রাস্তা। ট্রাফিক তুলনায় কম। আর সেখানেই দেখা গেল বিরল এক দৃশ্য। উত্তরপাড়ায় (Uttarpara) হইহই কাণ্ড। ফাঁকা রাস্তা দিয়ে গুটি গুটি পায়ে জিটি রোডের দিকে হেঁটে চলেছে এক কচ্ছপ (Tortoise)! স্থানীয় কয়েকজনের চোখে পড়ে দৃশ্যটি। তাঁরা তড়িঘড়ি কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশের নজরে আনেন বিষয়টি। খবর দেওয়া হয় উত্তরপাড়া থানায়। শেষমেশ কচ্ছপটিকে আবার গঙ্গায় ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে। পরিবেশবিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, ফ্ল্যাপশেল প্রজাতির ওই কচ্ছপটি বিরল প্রজাতির। গঙ্গায় (Ganga) মাঝেমধ্যে দেখা মেলে। তাই এসব কচ্ছপ দেখলে যেন গঙ্গায় ফিরিয়ে দেওয়া হয়, স্থানীয়দের কাছে সেই আবেদন জানিয়েছেন তাঁরা।

বিরল প্রজাতির এই কচ্ছপটি উঠে এসেছে উত্তরপাড়ার গঙ্গা থেকে। নিজস্ব চিত্র।

প্রায় দেড় কেজি ওজনের ফ্ল্যাপ শেল প্রজাতির কচ্ছপটি উত্তরপাড়ার মন্দির বাড়ির ঘাট থেকে উঠে রাস্তা দিয়ে ধীর গতিতে হেঁটে যাচ্ছিল। সেসময় চোখে পড়ে এলাকার কয়েকজনের। লোকজন দেখে ভয়ে গুটিয়ে যায় কচ্ছপটি। বনদপ্তরে (Forest Department) খবর দেওয়া হয়। বনদপ্তর থেকে জানানো হয়, ওই প্রজাতির কচ্ছপ বিরল। কচ্ছপটি সুস্থ থকলে যেন তার প্রাকৃতিক বাসস্থানে ছেড়ে দেওয়া হয়। বনদপ্তরের কথা শুনে গঙ্গার জলে ফের কচ্ছপটিকে ছেড়ে দিয়ে আসেন স্থানীয়রা।

[আরও পড়ুন: জ্বলছে সন্দেশখালি, প্রমিস ডে-তে রিলসে ব্যস্ত সাংসদ নুসরত! ক্ষোভে ফুঁসছেন বাসিন্দারা]

তাঁরা জানান, ”কচ্ছপটিকে কোনও আঘাত না করে নিরাপদ জায়গায় রেখে দিয়েছিলাম। পরে পুলিশ ও বনদপ্তরের সঙ্গে যোগাযোগ করি। বনদপ্তর থেকে জানানো হয় গঙ্গায় ছেড়ে দিতে।” স্থানীয় বাসিন্দা শংকর সাঁতরা জানান, ”বিরল প্রজাতির এই প্রাণীটি গঙ্গার থেকে উঠে এসেছিল। এটি একটি বিলুপ্তপ্রায় (Rare) প্রাণী। মাঝেমধ্যেই গঙ্গায় দেখা যায় এদের। অনেক সময় আবার তাদের ছেড়েও দেওয়া হয়েছে। অনেক সময় জেলেদের জালে ধরা পড়ে এই সমস্ত প্রাণী। তাদের কাছে অনুরোধ করব, নিরীহ প্রাণীগুলিকে তাঁরা যেন মেরে না ফেলে।”

[আরও পড়ুন: পাকিস্তান আছে পাকিস্তানেই! বেলুন নয়, ভোটে জিতে কন্ডোম উড়িয়ে উদযাপন]

বিরল ফ্ল্যাপশেল কচ্ছপটিকে দেখে এলাকার কয়েকজন যে বনদপ্তরে ফোন করে তা জানান, তাঁদের এই সচেতন উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন এলাকাবাসী। তাঁদের বক্তব্য, সমাজে এখনও এই ধরনের মানুষের আছেন, যারা বিরল জলজ প্রাণীকূলকে বাঁচাতে উদ্যোগী।

দেখুন ভিডিও: 

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ