BREAKING NEWS

১৫ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

বিশ্বের ইতিহাসে প্রথম, মন্দির থেকে রোবটের মাধ্যমে অস্ত্রোপচার

Published by: Bishakha Pal |    Posted: December 7, 2018 12:18 pm|    Updated: December 7, 2018 12:18 pm

Robot makes surgery

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘গুগল আই’ দিয়ে অস্ত্রোপচারের সাফল্যের পর অপারেশন থিয়েটারে এবার ‘রোবট’!হাসপাতাল থেকে ৩২ কিলোমিটার দূরে অক্ষরধাম স্বামীনারায়ণ মন্দির তখন কন্ট্রোল রুম। সেখানে বসেই চিকিৎসক এক মনে রোবটকে নির্দেশ দিয়ে যাচ্ছেন। আমেদাবাদের অ্যাপেক্স হার্ট ইনস্টিটিউটের অপারেশন থিয়েটারে চিকিৎসকের নির্দেশ মতো মাঝবয়সি এক মহিলার হার্ট অপারেশনে ব্যস্ত রোবট। অস্ত্রোপচারের সাফল্যের পরই খবরের শিরোনামে রোবট এবং চিকিৎসক দু’জনে।

অপারেশন থিয়েটারে কোনও চিকিৎসক নেই। শুধুমাত্র ইন্টারনেটের ভরসায় রোবট দিয়ে অস্ত্রোপচার করা কতটা যুক্তিসঙ্গত? প্রশ্ন শুনে কলকাতার সার্জনদের কেউ বলছেন, “গিমিক”। কেউ বলছেন ‘মিরাকল’। তো কেউ বলছেন, “এসব ‘স্ট্যান্ডার্ড মেডিক্যাল প্র্যাক্টিস’-এর বাইরে।” আহমেদাবাদের অ্যাপেক্স হার্ট ইনস্টিটিউটের ‘পদ্মশ্রী’ খেতাবে ভূষিত হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা: তেজস প্যাটেল সংবাদ সংস্থা পিটিআই-কে জানিয়েছেন, আপৎকালীন পরিস্থিতিতে রোগীকে বাঁচানোর ‘টেলি রোবটিক সার্জারি’ ব্যবস্থা করা হয়। এবং তিনি সেটাই করেছেন অক্ষরধামে বসে।

কিন্তু এত জায়গা থাকতে অক্ষরধাম মন্দির থেকে অস্ত্রোপচার কেন? প্রশ্নের উত্তরে প্যাটেল সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, “অক্ষরধাম আমার কাছে আধ্যাত্মিকতা এবং প্রযুক্তির যৌথ প্রতীক। মানুষের মতো মানুষ হয়ে ওঠার পিছনে আমার জীবনে এই মন্দিরের বিরাট ভূমিকা।

চাইলেই মুছে ফেলতে পারেন আধারের তথ্য, নতুন নিয়মের ভাবনা কেন্দ্রের  ]

ঠিক কী হয়েছিল বুধবার?

অ্যাপেক্স হার্ট ইনস্টিটিউটে চিকিৎসারত মাঝবয়সি এক মহিলার ধমনিতে ৯০ শতাংশ ব্লক থাকার কারণে রক্ত চলাচল প্রায় বন্ধ হতে বসেছিল। ডা: তেজস প্যাটেলের অধীনে ভরতি ছিলেন তিনি। চিকিৎসার প্রয়োজনে বিশ্বে প্রথমবার টেলিরোবটিক করোনারি ইন্ট্রিভেনশনের সাহায্য নেন ডা: তেজস। এক ইংরেজি সংবাদপত্রে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে ডা: প্যাটেল বলেছেন, “কম্পিউটারের সাহায্যে রোবট চালিয়ে এই অস্ত্রোপচার করা হয়েছে। পৃথিবীর ডাক্তারি শাস্ত্রের ইতিহাসে প্রথমবার এই ধরনের অস্ত্রোপচার হল।” ডাক্তারি পরিভাষায় এই ঘটনাকে বলা হচ্ছে ‘টেলি রোবটিক সার্জারি’। অত্যাধুনিক রোবটিকসের মাধ্যমেই এই অসাধ্য সাধন করা সম্ভব হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

ডা: তেজস প্যাটেলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রুপানি। নতুন এই প্রযুক্তির মাধ্যমে প্রত্যন্ত গ্রামে অত্যাধুনিক চিকিৎসার সুযোগ পৌঁছে দেওয়া সম্ভব কি না, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি। ডা: প্যাটেলের দাবি কার্যত উড়িয়ে দিয়ে দিয়ে কলকাতার বিশিষ্ট হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ কুণাল সরকার বললেন, “একেবারেই বিশ্বাস করতে পারলাম না। বাস্তব আর কল্পবিজ্ঞানের মধ্যে পার্থক্য বুঝতে হবে। বিদেশে গত একমাসে অল্প সংখ্যক অস্ত্রোপচারে রোবটকে কাজে লাগানো হয়েছে, তাতেও ১০০ শতাংশ সাফল্য আসেনি। আর গুজরাতের চিকিৎসক অপারেশন থিয়েটারের বাইরে বসে সাফল্য পেলেন। হাস্যকর।”

[ বুলন্দশহর কাণ্ডের মূল অভিযুক্তের সমর্থনে উত্তাল সোশ্যাল মিডিয়া ]

তিনি আরও জানান, অপারেশন থিয়েটারের বাইরে থেকে শুধুমাত্র রোবটের ভরসায় অস্ত্রোপচারের পরামর্শ তিনি কাউকেই দেবেন না। এদিন একই সুর শোনা গেল কলকাতার বিশেষজ্ঞ নিউরোরেডিওলজিস্ট ডা: সুকল্যাণ পুরকায়স্থর গলায়। তিনি বলেন, “বিদেশে অপারেশন থিয়েটারে রোবটিক্স কাজে লাগানো হয়। চিকিৎসকও উপস্থিত থাকেন সেখানে। ব্রেন, তলপেটের গভীরে ইত্যাদি যেখানে চিকিৎসকের হাত পৌঁছতে পারে না, সেখানে আমরা ‘রোবটিক আর্মস’-এর ব্যবহার করি। কিন্তু গুজরাটে কী হয়েছে সেটা একমাত্র ডা: প্যাটেলই বলতে পারবেন। হাসপাতালের পরিকাঠামো দেখতে হবে। চিকিৎসকের অনুপস্থিতিতে অস্ত্রোপচার করা কখনওই উচিত নয়।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে