Advertisement
Advertisement

Breaking News

USA

ছাঁটাইয়ের উলটো ছবি, করোনা কালে শ্রমের উপহার, কর্মীদের নিয়ে বেড়াতে গেলেন রেস্তরাঁ মালিক

মালিকের প্রশংসায় সোশ্যাল মিডিয়ার পাতা ভরিয়ে দিয়েছেন নেটিজেনরা।

US eatery takes its employees on a trip to Las Vegas as reward of working hard amidst corona crisis | Sangbad Pratidin
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:July 11, 2021 7:56 pm
  • Updated:July 12, 2021 8:50 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা (Corona virus)কালে কর্মসংকটের চিত্রটা বেশ প্রকট গোটা বিশ্বেই। বহুজাতিক সংস্থা থেকে স্থানীয় স্তরে ছোটখাটো সংগঠন – কর্মী ছাঁটাইয়ের পথে হাঁটতে কার্যত বাধ্য হয়েছে মালিকপক্ষ। এমন বিষাদের সময় হর্ষ নিয়ে এলেন আমেরিকার (USA) এক ছোট্ট রেস্তঁরার মালিক। মহামারীর সময়ে ঝুঁকি নিয়ে, অতিরিক্ত পরিশ্রম করেছেন এখানকার কর্মীরা। এবার তাঁদের পুরস্কার পাওয়ার পালা। ধাবার মালিক তাই সব কর্মীকে নিয়ে উড়ে গেলেন লাস ভেগাস (Las Vegas)। মালিকের এই মহানুভবতায় আপ্লুত কর্মীরা। তাঁরা এত খুশি হয়েছেন, তা প্রকাশের জন্য লাস ভেগাস ভ্রমণের নানা ছবি তুলে ধরলেন। তা দেখে ধন্য ধন্য করছেন নেটিজেনরা।

রামেন হাউস লুইসভিল। ছোট্ট এক রেস্তরাঁ। আমেরিকায় কোভিডের চোখরাঙানি উপেক্ষা করেই নিরন্তর পরিশ্রম করে গিয়েছেন কর্মীরা। নিজেদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে। কখনও খাবার পৌঁছে দিয়েছেন বয়স্কদের কাছে, কখনও আবার রেস্তরাঁর দোরগোড়ায় এসে দাঁড়ানো ক্ষুধার্ত মানুষের খিদে মিটিয়েছেন। হয়ত রামেন হাউসের মতো আরও অনেকেই একই কাজ করেছেন এই করোনা কালে। কিন্তু ভাগ্যের নিষ্ঠুর পরিহাসে এরপরও তাঁদের অনেককে চাকরি খোয়াতে (Jobless) হয়েছে। পরিবার নিয়ে বিপাকে পড়েছেন। আর এখানেই সম্পূর্ণ উলটো ছবি রামেন হাউসে। সেখানে কঠোর পরিশ্রম করা কর্মীদের ছেঁটে ফেলে লাভের মুখ দেখতে চাননি মালিক। বরং সকলকে নিয়ে একসঙ্গে কঠিন সময় পেরতে চেয়েছেন। লক্ষ্য এবার তাই লাস ভেগাসের মতো জনপ্রিয় পর্যটনস্থল।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ১০ বছর নিরুদ্দেশ বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন তরুণ, খুঁজে এনে দিল Aadhaar]

রেস্তরাঁর দরজার বাইরে দেখা গেল ছোট্ট এক মর্মস্পর্শী বার্তা। তাতে লেখা – এই সপ্তাহে বন্ধ থাকবে আমাদের রেস্তরাঁ। তার জন্য দুঃখিত। এই অদ্ভুত সময়ে আমাদের কর্মীরা কঠোর পরিশ্রম করেছেন। এবার আমাদের একটা বিরতি চাই। আমরা ঠিক করেছি, সকলকে নিয়ে লাস ভেগাস ঘুরতে যাব। পরের সপ্তাহে আবার রেস্তরাঁ চালু হবে।” এই বার্তাই মন ছুঁয়ে গেছে সকলের। মালিককে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন রেস্তরাঁর গ্রাহকরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁদের একসঙ্গে বেড়াতে যাওয়ার ছবি দেখে মন ভাল হয়ে গিয়েছে নেটিজেনদেরও। কেউ লিখেছেন, ”এই রেস্তরাঁর খাবার দারুণ। তবে আরও ভাল লাগল, এভাবে সকলকে নিয়ে একসঙ্গে বেড়াতে যাওয়া। মালিক যেভাবে কর্মীদের পাশে রয়েছেন, তার জন্য তাঁকে ধন্যবাদ।” আরেকজনের মন্তব্য, ”এটা যোগ্য পুরস্কার। ধন্যবাদ রামেন হাউসের সবাইকে।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: স্মৃতি আগলে রাখার অদ্ভুত পন্থা, মৃতদের দাঁত-চুল-ভস্ম দিয়ে গয়না তৈরি করেন মহিলা!]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ