BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

লকডাউন ভাঙায় তিন যুবককে অভিনব ‘শাস্তি’, পুলিশের ভিডিও দেখে নেটদুনিয়ায় হাসির রোল

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: April 24, 2020 3:44 pm|    Updated: April 24, 2020 6:09 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশজুড়ে লকডাউনের এক মাস পার। এতদিন লকডাউন ভাঙলে দেশের বিভিন্ন জায়গায় পুলিশ সাধারণ মানুষকে হরেক রকম শিক্ষা দিয়েছে। কোথাও রাস্তায় কান ধরে ওঠবোস করিয়ে, কোথাও যোগব্যায়াম করিয়ে, কোথাও আবার ফুল-চন্দন-ধূপ দিয়ে আরতি করতেও দেখা গিয়েছে পুলিশকে। তাছাড়া লাঠি দিয়ে মার তো রয়েইছে। কিন্তু সব পন্থাকে হার মানাল তামিলনাড়ুর তিরুপ্পুর পুলিশ। আইন ভঙ্গকারীদের সবক শেখাতে যে উপায় তারা নিল তা নিয়ে হাসির রোল উঠেছে নেটদুনিয়ায়। পুলিশের অভিনব শাস্তির ভিডিও রীতিমতো ভাইরাল।

কী করল পুলিশ? তিরুপ্পুর পুলিশের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেখানে দেখা যাচ্ছে, নাকা চেকিংয়ের সময় স্কুটিতে চেপে ঘুরে বেড়ানো তিন যুবককে অভিনব উপায়ে শিক্ষা দিচ্ছে পুলিশ। প্রথমে তিন যুবককে রাস্তায় আটকায় পুলিশ। তাঁদের কারও মুখে মাস্ক ছিল না। তারপর তাদের চ্যাংদোলা করে একটি দাঁড়িয়ে থাকা অ্যাম্বুল্যান্সের মধ্যে ঢুকিয়ে দেওয়া হয়। সেই অ্যাম্বুল্যান্সে একজন পিপিই পরে শুয়ে ছিল। তাঁকে করোনা আক্রান্ত ভেবে অ্যাম্বুল্যান্সের ভিতরে হুড়োহুড়ি শুরু করে দেন তিন যুবক। কেউ কেউ অ্যাম্বুল্যান্সের জানালা দিয়ে পালানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু পুলিশকর্মীরা বাইরে দাঁড়িয়ে তাঁদের পালানোর পথ আটকায়।

[আরও পড়ুন: প্রত্যন্ত গ্রামে ইন্টারনেটের সমস্যা, বাধ্য হয়ে নিমগাছে চড়ে অনলাইন ক্লাস নিচ্ছেন শিক্ষক!]

এরপর সেই পিপিই পরা যুবক ওই তিন যুবকের দিকে এগিয়ে গেলে আতঙ্কের চোটে কান্নাকাটি শুরু করেন তাঁরা। শেষে কাকুতি-মিনতি করে অ্যাম্বুল্যান্স থেকে বেরোন ওই তিন যুবক। ভিডিওর শেষে পুলিশ জনগণকে বার্তা দেয়, রাস্তায় যে কেউ করোনা আক্রান্ত ঘোরাঘুরি করতে পারে। তাই বাড়িতে থাকাই শ্রেয়। আর খুব প্রয়োজন না থাকলে বাড়ির বাইরে পা না রাখার পরামর্শ দিয়েছে পুলিশ। আর যদি প্রয়োজনে বেরতেই হয় তাহলে মুখে মাস্ক যেন অবশ্যই থাকে। পুলিশের এই অভিনব সচেতনতা ভিডিও নেটিজেনদের মনে ধরেছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় হাসির রোল উঠেছে আইন ভঙ্গকারীদের কাণ্ড দেখে।

[আরও পড়ুন: লকডাউনে বেজায় মনখারাপ, বারান্দায় বসে উদাস নয়নে চেয়ে ছোট্ট বুলডগ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement