৩ কার্তিক  ১৪২৬  সোমবার ২১ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মানুষের সঙ্গে হনুমানের অনেক ক্ষেত্রেই মিল খুঁজে পাওয়া যায়। অনেক সময়ই নানা অজুহাতে মানুষের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হওয়ার চেষ্টা করে তারা। সেইরকমই এক দৃশ্যের দেখা পাওয়া গেল উত্তরপ্রদেশের পিলভিট জেলায়। মঙ্গলবার পিলভিটের সদর কোতোয়ালি পুলিশ স্টেশনে কর্তব্যরত এক পুলিশ আধিকারিকের চুলে হাত বোলাতে দেখা গেল একটি হনুমানকে। এই ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হতেই মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গিয়েছে নেটদুনিয়ায়।

[আরও পড়ুন: ভিক্ষুকের ঘর থেকে উদ্ধার দেড় লক্ষ টাকার কয়েন, ব্যাংকে গচ্ছিত আরও সাড়ে আট লাখ!]

মঙ্গলবার নিজের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে ভিডিওটি পোস্ট করেছেন পিলভিটের এএসপি রাহুল শ্রীবাস্তব। তার পাশাপাশি তিনি টুইট করেছেন, ‘পিলভিটের ওই পুলিশ আধিকারিকদের অভিজ্ঞতা আপনাকে শেখাবে কাজের সময় বিরক্ত হতে না চাইলে রিটা, শিখাকাই বা ভাল কোনও শ্যাম্পু ব্যবহার করুন।’

তাঁর পোস্ট করে ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে পিলভিট থানার মধ্যে চেয়ার-টেবিলে বসে কাজ করছেন শ্রীকান্ত দ্বিবেদী নামে এক ইন্সপেক্টর। আর তাঁর কাঁধের উপর বসে চুলে হাত বোলাচ্ছে একটি হনুমান। ওই পুলিশের আধিকারিকের পিছনে থাকা জানলাটি খোলা রয়েছে। সেখানে মাঝে মাঝে উঁকি দিয়ে হনুমানের কাণ্ডকারখান দেখছেন অন্য পুলিশকর্মী ও থানায় আসা মানুষজন। ভিডিওতে একজন বলতে শোনা যাচ্ছে যে একটি কলা দেখিয়ে হনুমানটিকে দূরে সরিয়ে দেওয়া যেতে পারে। কিন্তু, কোনও দিকে ভ্রুক্ষেপ না করেই নিজের কাজ করে যাচ্ছেন শ্রীকান্ত আর তাঁর কাঁধে বসে থাকা হনুমান। মাঝে মাঝে শ্রীকান্তের মাথা থেকে কিছু একটা বের করে মুখেও পুরতে দেখা যাচ্ছে তাকে। অনেকে ওগুলিকে উকুন বলেও উল্লেখ করছেন।

[আরও পড়ুন:মারা গেল বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক কচ্ছপ, আয়ু জানলে অবাক হবেন]

সোশ্যাল মিডিয়াতে ভিডিওটি ভাইরাল হতেই বিভিন্ন ধরনের মন্তব্য করছেন নেটিজেনরা। একজন লিখেছেন, হনুমানটি মনে হয় ওই ইন্সপেক্টরের বন্ধু। আর একজন লিখেছেন বিনা পয়সায় ওই পুলিশ আধিকারিককে পরিষেবা দিচ্ছে হনুমান।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং