Advertisement
Advertisement
Kolkata

মা ভবতারিণী দর্শন থেকে ময়দানে পিকনিক, নতুন বছরে জমজমাট তিলোত্তমা

প্রতিবছরই কল্পতরুর দিন উপচে পড়া ভিড় হয় দক্ষিণেশ্বর মন্দিরে। এদিনও তার ব্যতিক্রম হল না।

১০

সবাইকে ভালো রেখো মা। এই কামনা নিয়েই বছরের প্রথম দিনে দক্ষিণেশ্বর মন্দিরে সকাল সকাল পৌঁছে গিয়েছিলেন ভক্তরা। মন্দিরের বাইরে ছিল দীর্ঘ লাইন। ছবি: প্রবীর বন্দ্যোপাধ্যায়

১০

প্রতিবছরই কল্পতরুর দিন উপচে পড়া ভিড় হয় দক্ষিণেশ্বর মন্দিরে। এদিনও তার ব্যতিক্রম হল না। মা ভবতারিণীর আশীর্বাদ নিয়েই নতুন বছর শুরু করলেন দূর-দূরান্ত থেকে আসা ভক্তরা। ছবি: প্রবীর বন্দ্যোপাধ্যায়

১০

পয়লা জানুয়ারি টালিগঞ্জের জাপানি কনস্যুলেটের সামনে হল কল্পতরু উৎসব। রাজ্যের মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের উদ্যোগে আয়োজিত এই উৎসবে ঠাকুরের মূর্তিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য জানান মন্ত্রী। নিজস্ব চিত্র।

১০

জগৎবাসীকে কৃপা করে আত্মপ্রকাশে অভয়দান করেছিলেন শ্রীরামকৃষ্ণ। করেছিলেন পয়লা জানুয়ারিই। বলেছিলেন, “তোমাদের কী আর বলিব, আশীর্বাদ করি তোমাদের চৈতন্য হউক।” তাই কাশীপুর উদ্যানবাটিতে প্রতিবারের মতো এবারও কল্পতরু উৎসবকে ঘিরে ভক্তদের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। ছবি: অমিত মৌলিক।

১০

তবে শুধু কল্পতরু উৎসবই নয়, আজ দিনভর শহরজুড়ে ছিল লোকারণ্য। কেউ সিনেমা দেখে তো কেউ পিকনিক করে সেলিব্রেট করলেন। এদিন দুপুরে গড়ের মাঠ ছিল ভিড়ে ঠাসা। ছবি: শুভাশিস রায়।

১০

প্রিন্সেপ ঘাটেও ছিল আমজনতার ভিড়। বছর পয়লার মিঠে রোদ গায়ে মেখে বন্ধুবান্ধব-পরিবারের সঙ্গে দেদার মজা, খাওয়া-দাওয়া, খেলাধূলা করেন অনেকেই। নিজস্ব চিত্র।

১০

বছরের প্রথম দিন আলিপুর চিড়িয়াখানায় যে ভিড় হবেই, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। এদিন সকাল থেকেই বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বাবা-মায়ের হাত ধরে কচিকাঁচারা পৌঁছে গিয়েছিল পশুদের জগতে। নিজস্ব চিত্র।

১০

হ্যাপি নিউ ইয়ার। গোটা বছরটা ভালো কাটুক। শহরের রাস্তায় এই বার্তা নিয়েই সাইকেলে করে ঘুরলেন এক ব্যক্তি। নিজস্ব চিত্র।

১০

ভিক্টোরিয়ার সামনেও এদিন ছিল লম্বা লাইন। অল্প ঠান্ডায় হালকা শীতের পোশাক গায়ে চাপিয়ে তিলোত্তমার অন্যতম আকর্ষণীয় পর্যটন কেন্দ্রে পৌঁছে গিয়েছিলেন অনেকেই।

১০ ১০

নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে অনেকেই পিকনিকে মেতে ওঠেন। কোলাঘাটের রূপনারায়ণের তীরে পিকনিকের ছবিটা ছিল দেখার মতো। ছবি: অরিজিৎ সাহা