Advertisement
Advertisement
Saayoni Ghosh

বিবেকানন্দ নিয়ে সুকান্তর মন্তব্যের প্রতিবাদ, শাহী সফরের মাঝেই ফুটবল পায়ে শশী-সায়নী

স্বামী বিবেকানন্দকে অপমানের অভিযোগ উঠেছে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের বিরুদ্ধে।

স্বামী বিবেকানন্দকে অপমানের অভিযোগ উঠেছে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের বিরুদ্ধে। তারই প্রতিবাদে পালটা পথে নামল তৃণমূল। তিলোত্তমার রাস্তায় ফুটবল খেললেন রাজ্যের মন্ত্রী শশী পাঁজা, যুব তৃণমূলের সভানেত্রী সায়নী ঘোষ।

মঙ্গলবার দিনভর কলকাতায় একাধিক কর্মসূচি ছিল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ও বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার। আর সেই শাহী সফরের মাঝেই ব্লকে ব্লকে প্রতিবাদ মিছিল বের করে তৃণমূল। কলকাতায় হয় মহামিছিল।

প্রসঙ্গত, রবিবার ব্রিগেডে ‘লক্ষ কণ্ঠে গীতাপাঠ’ প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে সুকান্ত মজুমদার বলেছিলেন, “বাংলা বহু যুগ ধরে এই সনাতন সংস্কৃতির ধারক এবং বাহক। এবং ভক্তি আন্দোলনের পীঠস্থান ছিল। মাঝে বাংলা কিছুটা ডিরেলড হয়েছিল, বামপন্থীদের দ্বারা। এখন দেখতে পাচ্ছেন না অল্প বিদ্যা ভয়ংকরী। গীতাপাঠের থেকে ফুটবল খেলা ভালো যারা বলছেন তারা বামপন্থী প্রোডাক্ট। এখন বাংলা সঠিক পথে যাবে। আজকে থেকে শুরু হচ্ছে সঠিক পথে যাওয়া।”

তৃণমূলের অভিযোগ, এহেন মন্তব্য করে বিবেকানন্দকেই 'অপমান' করেছেন সুকান্ত। আর তারই পালটা হিসেবে ফুটবল নিয়ে রাস্তায় নেমে পড়লেন শশী-সায়নীরা।

মহামিছিল শেষে সায়নী বলেন, বঙ্গ বিজেপির সভাপতি সুকান্ত মজুমদার অত্যন্ত শিক্ষিত। কিন্তু তা সত্ত্বেও স্বামী বিবেকানন্দকে নিয়ে বিকৃত মন্তব্য করেছেন। আসলে ফুটবল শুনলেই বিজেপি রেগে যায়। কারণ বিজেপি এর আগে ভোটে এত গোল খেয়েছে যে শুনলেই চিড়বিড়ানি ধরে যায়।

যদিও রাজনৈতিক মহলের একাংশের দাবি, শাহী সফরের পালটা দিতে এই দিনকেই প্রতিবাদের জন্য বেছে নিয়েছে তৃণমূল। সেই সঙ্গে কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের মিমিক্রি থেকে নজর ঘোরাতেও সুকান্তর মন্তব্যকে হাতিয়ার করেছে শাসকশিবির।