২৫ কার্তিক  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১২ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৫ কার্তিক  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১২ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

ধীমান রায়, কাটোয়া: কেতুগ্রামের শ্রীরামপুর গ্রামের দুর্গাপ্রতিমার গলা কেটে নিয়ে যাওয়ার ঘটনায় এক দুষ্কৃতীকে গ্রেপ্তার করল পুলিশ। পুলিশ জানায় ধৃতের নাম অপূর্ব মাঝি (২৭)। শ্রীরামপুর গ্রামেই তার বাড়ি। বৃহস্পতিবার ভোরে তাকে গ্রাম থেকেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানতে পেরেছে, পুজো কমিটির সঙ্গে মনোমালিন্যের জেরেই অপূর্ব মাঝি নামে ওই যুবক রাতের অন্ধকারে প্রতিমার গলা কেটে নিয়ে পুকুরের ধারে ফেলে দেয়। এদিনই ধৃতকে কাটোয়া মহকুমা আদালতে তোলা হলে তাকে ২ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তার সঙ্গে আর কেউ জড়িত ছিল কিনা তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: মণ্ডপে তাণ্ডব দুষ্কৃতীদের, চাঞ্চল্য কেতুগ্রামে]

কেতুগ্রাম থানার নিরোল পঞ্চায়েত এলাকার শ্রীরামপুর গ্রামের সরকার পরিবারের দুর্গা প্রায় ৩০০ বছরের প্রাচীন। পারিবারিক পুজো হলেও বর্তমানে এই পুজো সর্বজনীন মাত্রা পেয়েছে। জানা গিয়েছে, গ্রামবাসীরা কমিটি করে এই পুজো পরিচালনা করেন। জানা গিয়েছে, বিজয়াদশমীতে প্রতিমা নিরঞ্জনের কথা থাকলেও বৃষ্টির কারণে হয়নি। একাদশীর সকালে গ্রামবাসীরা দেখতে পান, মন্দিরের গেট লাগানো অবস্থায় জানালার শিক ভেঙে দুর্গাপ্রতিমার গলা কেটে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ঘটনার পরেই কেতুগ্রাম থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। তারপর গ্রেপ্তার করা হয় অপূর্ব মাঝিকে।

পুলিশ জানিয়েছে, অপূর্ব মাঝি নামে ওই যুবকের বিরুদ্ধে এর আগে চুরি ছিনতাইয়েরও অভিযোগ ছিল। পুজোয় কমিটি গঠন নিয়ে তার সঙ্গে কমিটির একাংশের মনোমালিন্য হয়েছিল। তার জেরে দশমীর রাতে মদ্যপ অবস্থায় মন্দিরে হানা দিয়ে মূর্তি ভাঙচুর করেছে বলে জেরায় জানতে পেরেছে পুলিশ। তবে এই ঘটনায় তার সঙ্গে আরও কেউ জড়িত থাকতে পারে বলে পুলিশের ধারণা। তাদের নাম জানার উদ্দেশ্যেই ধৃতকে নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং