BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

কেরলের মুরুগান মন্দিরের আদলে এবার মণ্ডপ মহম্মদ আলি পার্কের পুজোয়

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: September 27, 2019 4:01 pm|    Updated: September 27, 2019 4:01 pm

Durga Puja 2019: Muhammad Ali Park theme is Kerala temple

শুভময় মণ্ডল: বহু বছর পর এবারই স্থানবদল হয়েছে মহম্মদ আলি পার্কের পুজোর। সেই ১৯৬৯ সালে চিৎপুরের তারাচাঁদ দত্ত স্ট্রিটে শুরু হয় এই পুজোর। তারপর জনপ্রিয়তার শিখরে ওঠার পর মধ্য কলকাতার মহম্মদ আলি পার্কে স্থানান্তরিত হয় এই পুজোর। তবে এবার সুরক্ষাজনিত কারণে এই পুজো সরে এসেছে। সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউয়ের দমকল কেন্দ্রের পিছনের ফাঁকা জমিতেই এবার হচ্ছে এই বিখ্যাত পুজো। এবার কেরলের বিখ্যাত মুরুগান মন্দিরের আদলে তৈরি হচ্ছে মণ্ডপ। মণ্ডপসজ্জা বিখ্যাত শিল্পী প্রশান্ত পালের।

[আরও পড়ুন: থিম ভাবনায় বিদ্যাসাগর, বর্ণপরিচয়ের স্রষ্টাকে শ্রদ্ধাজ্ঞলি শহরের এই পুজোর]

এবছর ৫১তম বর্ষ ইয়ুথ অ্যাসোসিয়েশনের পুজোর। কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুরেন্দ্র কুমার শর্মা জানিয়েছেন, গত বছর সুবর্ণ জয়ন্তী বর্ষের তুমুল সাফল্যের পর এবার কেরলের লোকশিল্পের অন্যতম নিদর্শন মুরুগান মন্দিরের আদলে মণ্ডপ নির্মিত হয়েছে। দর্শনার্থীরা মণ্ডপে এলে একটুকরো কেরলকে উপলব্ধি করবেন বলে আশ্বাস উদ্যোক্তাদের। দু’লক্ষ থার্মোকল শিট দিয়ে মণ্ড সাজিয়েছেন শিল্পী প্রশান্ত পাল। আসল মন্দিরের আদল দিতে কোনও কসুর রাখেননি শিল্পী। গতবার বিখ্যাত বলিউড ছবি ‘পদ্মাবত’-এর আদলে মণ্ডপ সাজিয়েছিলেন শিল্পী। প্রতিমা হয়েছিল রাজস্থানি ঐতিহ্য মেনে। সেবার দর্শনার্থীদের বেশ মনে ধরেছিল মণ্ডপ। এবারও তার অন্যথা হবে না বলে জানিয়েছেন প্রশান্ত পাল।

কিন্তু মহম্মদ আলি পার্কে পুজো হবে না কেন এবার? মহম্মদ আলি পার্কের নিচে একটি জলাধার আছে। ব্রিটিশ আমলের ওই জলাধারটি ইটের কাঠামো দিয়ে তৈরি। কালের নিয়মে সেই কাঠামোটি দূর্বল হয়ে গিয়েছে। কয়েক মাস আগে জলাধারের পাশে ইটের পাঁচিলের একাংশ ভেঙে গিয়ে জলে ভেসে গিয়েছিল মহম্মদ আলি পার্ক ও সেন্ট্রাল এভিনিউয়ের একাংশ। পুরসভার উদ্যান ও জল সরবরাহ বিভাগের ইঞ্জিনিয়ার তখন কোনওমতে পরিস্থিতি সামাল দিয়েছিলেন। পরে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষজ্ঞরা জলাধারের ইটের কাঠামোটি পরীক্ষা করে জানান, সেটি অত্যন্ত দূর্বল হয়ে পড়েছে। অবিলম্বে মেরামতির প্রয়োজন। আর যখন মেরামতির কাজ চলবে, তখন মহম্মদ আলি পার্কের উপর কোনও চাপ দেওয়া যাবে না। কলকাতা পুরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিম নিজে পুজো উদ্যোক্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠকে এ বছরের জন্য পুজো অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার অনুরোধ করা হয়। সেই আবেদনে সাড়া দিয়েই এবার মহম্মদ আলি পার্কে পুজো না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন উদ্যোক্তারা।

[আরও পড়ুন: আধুনিকতার ঘেরাটোপে ক্ষমতাবান ‘খুঁটি’কে পুজো করার গল্প বলবে রায়পুর ক্লাব]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে