২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

জীবনের লড়াইয়ের মঞ্চে দশভুজার আবাহন, আনন্দের মাঝেও সংগ্রামের বার্তা দেবে এই পুজো

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: October 14, 2020 2:17 pm|    Updated: October 14, 2020 2:17 pm

An Images

এবছর করোনা আবহেই পুজো। স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্লাবগুলিতে চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি৷ কলকাতার বাছাই করা কিছু সেরা পুজোর সুলুকসন্ধান নিয়ে হাজির sangbadpratidin.in৷ আজ পড়ুন গৌরীবেড়িয়া সর্বজনীনের পুজোর প্রস্তুতি৷

সুচেতা সেনগুপ্ত: জীবনের শুরু থেকে শেষদিন পর্যন্ত লড়াই তো সঙ্গী। প্রতিটি ছোট ছোট ধাপ পেরতেও কোনও না কোনও লড়াই করতেই হয়। বছরে মাত্র একটিবার পার্বতী সপরিবারের বাপের বাড়ি আগমনে তাঁকে সাদরে বরণ করে নিতে মর্ত্যবাসীর যে প্রস্তুতি, তারও প্রতি ধাপে রয়েছে ছোট ছোট লড়াই। আর এই মুহূর্তে চলছে মানবজাতির সবচেয়ে বড় লড়াই – মারণ করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে। এই ভাবনা সামনে রেখেই এবার দুর্গাপুজোর (Durga Puja) প্রস্তুতি নিচ্ছে গৌরীবেড়িয়া সর্বজনীন (Gouriberia Sarbojanin)। ৮৭ তম বর্ষে তাদের থিম – লড়াই। দুর্গাপুজোর দিন কয়েক আগে তাদের কাজকর্ম শেষের মুখে।

Durga Puja

বছরের শুরু থেকে দেবী বরণের আয়োজন নিয়ে ঘোর অনিশ্চয়তা ছিল। কারণ একটাই, আচমকা বিশ্বজুড়ে মহামারীর কামড়। তার সংক্রমণ থেকে বাঁচতে দীর্ঘ লকডাউন। পুজো কীভাবে হবে, আদৌ হবে কি না, এসব ভাবনা গ্রাস করেছিল গৌরীবেড়িয়া সর্বজনীনের সদস্যদের। এ প্রসঙ্গেই ক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক মান্টা মিশ্র বলছিলেন, ”পুজো আমরা নাই করতে পারতাম। করোনা সমস্যাকে অতিক্রম করে পুজোর আয়োজন নিয়ে ধোঁয়াশা ছিল। কিন্তু ভেবে দেখলাম, পুজোটা হলে অন্তত প্রান্তিক মানুষজনকে কাজে লাগিয়ে তাঁদের হাতে কিছু অর্থ তুলে দেওয়া যাবে। এই সময় তা বড় জরুরি।”

[আরও পড়ুন: দর্শনার্থীদের মণ্ডপে প্রবেশ নিষেধ, করোনা আবহে ভাবনায় বদল কলকাতার এই বারোয়ারির]

এরপরই তিনি থিম ভাবনার কথা প্রকাশ করলেন। বললেন, ”একটা পুজো করতে যে যে প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে যেতে হয়, ধাপে ধাপে সব পেরিয়ে ভালভাবে পুজোর প্রস্তুতি শেষ করা, এসবই তো একটা লড়াইয়ের ছোট ছোট অংশ। এ বছর লড়াইটা আরও বেশি। তাই থিম হিসেবে আমরা লড়াইকে এনেছি।” এবার করোনা আবহে তাদের বাজেট কমেছে এক তৃতীয়াংশ। গৌরিবেড়িয়া সর্বজনীনের ‘লড়াই’এর সঙ্গী থিমশিল্পী সৌরভ নাগ।

Durga Puja

আরও একটি দিক থেকে গৌরীবেড়িয়া সর্বজনীনের পুজোর আয়োজনে ভিন্ন ছোঁয়া রয়েছে। তাদের ‘লড়াই’এ শামিল দুই কোভিড জয়ী পল্লব বন্দ্যোপাধ্যায় এবং অম্লান চক্রবর্তী। কীভাবে? এবছর এই পুজোর থিম সং গেয়েছেন এই দুই করোনাজয়ী। যুগ্ম সম্পাদক মান্টা মিশ্রের কথায়, ”প্রকৃত লড়াকু তো তাঁরা। তাই তাঁদের আমরা আমাদের লড়াইয়ে শামিল করেছি।” গৌরীবেড়িয়া সর্বজনীনের প্রতিমা গড়ছেন মৃৎশিল্পী সৌমেন পাল। থিমের সঙ্গে মানানসই প্রতিমার গড়ন। অর্থাৎ দশভুজার রূপেও এবার থাকবে লড়াইয়ের ছায়া।

[আরও পড়ুন: এবার সূর্যমন্দিরে মা দুর্গার আরাধনা হবে উত্তর কলকাতার এই মণ্ডপে]

পুজোর প্রস্তুতি কতদূর? জানা গেল, তা প্রায় শেষ। পরিবেশবান্ধব সামগ্রী – বাঁশ, নারকেল দড়ি, শীতলপাটি, দরমা দিয়ে তৈরি হচ্ছে মণ্ডপ। সরকারি বিধি মেনে ছাদখোলা মণ্ডপের পাশাপাশি গোটা মণ্ডপের মোট তিনটি গেট থাকছে, যাতে দর্শনার্থীদের মধ্যে শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে কোনও অসুবিধা না হয়। তৃতীয়া থেকেই দর্শনার্থীদের স্বাগত জানাতে চলেছে গৌরীবেড়িয়া সর্বজনীন। তাদের ‘লড়াই’এ আপনি শামিল হচ্ছেন তো?

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement