BREAKING NEWS

১০ কার্তিক  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

গ্রহাণু নাকি ধূমকেতু? পৃথিবীকে ঘিরে পাক খাচ্ছে কোন রহস্যময় বস্তু? উত্তর খুঁজতে ব্যস্ত বিজ্ঞানীরা

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: October 7, 2021 10:06 pm|    Updated: October 7, 2021 10:06 pm

A rare object with long-tail detected cruising in the solar system makes scientists confused | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন জিজিটাল ডেস্ক: গ্রহাণু (Asteroid) নাকি ধূমকেতু (Comet)? পৃথিবীর চারপাশে ঘুরপাক খেতে থাকা নতুন এক মহাজাগতিক বস্তু বিজ্ঞানীদের নজরে আসার পর এমনই প্রশ্ন উঠে গিয়েছে। কেউ কেউ বলছেন, এর ল্যাজের অংশ থেকে ধূমকেতুর ল্যাজ বলে মনে হচ্ছে। আবার কারও মতে, এটি মূল গ্রহাণু থেকে ছিটকে বেরনো আরও একটি গ্রহাণু। কেউ আবার মনে করছেন, মহাকাশে স্রেফ ধুলোর স্তর ছাড়া তা আর কিছুই নয়। ফলে নতুন মহাজাগতিক বস্তু 2005 QN173-কে নিয়ে গবেষণা এখন তুঙ্গে।

চলতি বছরের জুলাই মাসেই এই গ্রহাণু-ধূমকেতুর অস্তিত্ব ভালভাবে টের পেয়েছিলেন বিজ্ঞানীরা। দেখা যায়, প্রায় ৭ লক্ষ ২০ কিলোমিটার দীর্ঘ পথ জুড়ে প্রদক্ষিণ করে চলেছে 2005 QN173। পরে তা নিয়ে গবেষণা করে বিজ্ঞানীরা বুঝতে পারেন, মঙ্গল, বৃহস্পতির (Jupiter) কক্ষপথে গ্রহাণুদের চলাচল যেমন একটা নির্দিষ্ট পথজুড়ে রয়েছে, নবআবিষ্কৃত মহাজাগতিক বস্তুর গমনপথ তেমনও নয়। আরেকদল বিজ্ঞানীর মতে, 2005 QN173 শুধুমাত্র ৭ লক্ষ ২০ হাজার কিলোমিটার ধুলোর পথ তৈরি করেছে। যার খানিকটা বরফাবৃত।

[আরও পড়ুন: একটি নয়, একসঙ্গে তিনটি ‘সূর্যে’র চারিদিকে ঘুরছে গ্রহ! সন্ধান পেলেন বিজ্ঞানীরা]

তবে চলতি বছরই শুধু নয়। ২০০৫ সাল থেকে এই রহস্যময় গ্রহাণু-ধূমকেতুর মধ্যবর্তী বস্তুটি বিজ্ঞানীদের বেশ ধাঁধায় ফেলেছিল। তার গতিবিধি মোটেই বুঝে উঠতে পারছিলেন না তাঁরা। তারউপর মঙ্গল, বৃহস্পতিদের কেন্দ্র করে ঘুরে বেড়ানো গ্রহাণুদের অবস্থান আর 2005 QN173-এর অবস্থানের তারতম্যই তাঁদের ভাবিয়ে তুলছিল বেশি। এর প্রকৃতি পুরোপুরি গ্রহাণুর মতো নয়, আবার লম্বা ল্যাজ থাকায় ধূমকেতুর সঙ্গে খানিক মিল খুঁজে পেলেও সেই নাম দিতে বাধোবাধো ঠেকছে।

[আরও পড়ুন: কী সংগীত ভেসে আসে! মহাকাশের ‘সুর’ শোনাল NASA]

অনেকদিন ধরে এই রহস্যময় বস্তুটিকে গভীরভাবে পর্যবেক্ষণের পর বিজ্ঞানীদের একাংশের ধারণা, এর গঠন মোটেই সৌরজগতের আর পাঁচটা ধূমকেতুর মতো নয়, শুধুমাত্র ল্যাজের অংশ বাদ দিলে। হতেই পারে, 2005 QN173 আমাদের সৌরজগতে ‘বহিরাগত’। বিশেষত তার দীর্ঘ ৭ লক্ষ ২০ কিলোমিটার দীর্ঘ জমা ধুলোর ল্যাজ দেখে তেমনই ধারণা বিজ্ঞানীদের একাংশের। সেইসঙ্গে এই সম্ভাবনাও দেখছেন তাঁরা। তবে কি সৌরজগতের মধ্যবর্তী কোনও অংশে জলের কোনও অস্তিত্ব আছে? সেখান থেকেই কি বরফের আস্তরণ? এমনই নানা প্রশ্নের উত্তর এখনও খুঁজছেন বিজ্ঞানীমহল। তবে ধোঁয়াশা রয়েই গিয়েছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement