২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ল্যান্ডার বিক্রম ভেঙে পড়লেও অক্ষত রোভার প্রজ্ঞান, চলেও ছিল কিছু দূর, হদিশ দিলেন চেন্নাইয়ের টেকি

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: August 2, 2020 11:46 am|    Updated: August 2, 2020 8:14 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এর আগে চন্দ্রপৃষ্ঠে ISRO’র ল্যান্ডার বিক্রমের ধ্বংসাবশেষ খুঁজে দিয়েছিলেন। এবার নিখোঁজ রোভার প্রজ্ঞানের খোঁজ দিলেন চেন্নাইয়ের সেই টেকি শানমুগা সুব্রহ্মণম। গত বছর ডিসেম্বরে বিক্রমের হদিশ পাওয়ার পর হাল ছাড়েননি। গত কয়েক মাসের লাগাতার খোঁজ চলছিল। নিরলস পরিশ্রমের পর অবশেষে চন্দ্রপৃষ্ঠে রোভারকে খুঁজে পেয়েছেন এই মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার। যা নিয়ে শোরগোল পড়ে গিয়েছে।

শানমুগার দাবি, রাফ ল্যান্ডিংয়ের কারণে বিক্রম ল্যান্ডারের পেলোডস ভাঙলেও চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে চন্দ্রযানের প্রজ্ঞান রোভার এখনও অক্ষত আছে। বিক্রম ল্যান্ডার থেকে বেরিয়ে এসে, কয়েক মিটার পথ পাড়িও দিয়ে ফেলেছে সেই রোভার। চন্দ্রপৃষ্ঠে রোভারের সেই গতিপথ ট্র্যাক করেছেন শানমুগা। তারপর নিজেই টুইট করে সবকথা জানিয়েছেন। করোনা পরিস্থিতিতে লকডাউনের কারণে সবাই এখন বাড়ি থেকেই কাজ করছেন। এই সময়টাকে অন্যভাবে কাজে লাগাতে চেয়েছিলেন শানমুগা। এক আয়ুষ বিশেষজ্ঞের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে নিমপাতা নিয়ে গবেষণা করছিলেন। কিন্তু গবেষণার মাঝপথেই নিরাশ হয়ে প্রজ্ঞান রোভারের খোঁজে নেমে পড়েন তিনি।

[আরও পড়ুন: পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে গ্রহাণু, বিরল আবিষ্কারের জন্য ২ ভারতীয় ছাত্রীকে কুর্নিশ নাসার]

প্রসঙ্গত, নাসার দেওয়া কিছু ছবি বিশ্লেষণ করে শানমুগা গত ডিসেম্বরে প্রমাণ করেন, বিক্রমের ধ্বংসাবশেষ ঢাকা পড়ে গিয়েছে চাঁদের মাটি আর ধুলোয়। গত ৭ সেপ্টেম্বর চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে অবতরণের কথা ছিল ইসরোর পাঠানো বিক্রমের। কিন্তু চারশো মিটার ব্যবধান থেকে তার সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় ইসরোর। তার পর থেকে লাগাতার প্রচেষ্টা চালাতে থাকে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা। খোঁজ করতে থাকে নাসাও। কিন্তু অসাধ্যসাধন করেন শানমুগা। সম্প্রতি একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাত্‍‌কারে তিনি জানান, চন্দ্রযান ২-এর প্রজ্ঞান রোভারের গতিবিধি ট্র্যাক করতে নাসার ISIS3 USGS সফটওয়্যার ব্যবহার করেন। তাঁর এই খোঁজের বিশদ বিবরণ নাসা ও ইসরোকেও জানিয়েছেন শানমুগা।

[আরও পড়ুন: লক্ষ্য মহাকাশে অফুরান শক্তির জোগান, চাঁদে পারমাণবিক চুল্লি বসাতে চায় আমেরিকা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement