১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কেমন দেখতে করোনা ভাইরাস? ছবি প্রকাশ করলেন বিজ্ঞানীরা

Published by: Bishakha Pal |    Posted: March 28, 2020 12:42 pm|    Updated: March 28, 2020 12:42 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রায় সমগ্র বিশ্বকে গ্রাস করেছে COVID-19। হাতে গোনা কয়েকটি দেশ ছাড়া প্রায় সব দেশ থেকেই কমবেশি প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে আক্রান্তের খবর মিলেছে। পুণে সব দেশের অনেক পরীক্ষাগারে এই মারণ ভাইরাস নিয়ে গবেষণা চলছে। কেমন দেখতে এই ভাইরাস? সম্প্রতি তার ছবি প্রকাশ করেছে ইন্ডিয়ান জার্নাল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ। কয়েকজন বিজ্ঞানী পুণের পরীক্ষাগারে এই ভাইরাসের ছবি তুলেছেন। সেটিই ছাপা হয়েছে জার্নালে।

ভারতে প্রথম করোনা আক্রান্তের সন্ধান মেলে ৩০ জানুয়ারি, কেরলে। তিন ছাত্রী চিনের ইউহানে ওষুধ নিয়ে গবেষণা করছিলেন। তাঁরা দেশে ফেরার পর একজনের শরীরে করোনার অস্তিত্ব পাওয়া যায়। জানা যায়, COVID-19-এর জন্য দায়ী SARA-COV-2 ভাইরাস। ছাত্রীর গলার সোয়াব পরীক্ষা করে এই ভাইরাসের সন্ধান পাওয়া যায়। পুণের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ভাইরোলজিতে (NIV) সেই পরীক্ষা হয়েছিল। তারই ছবিই প্রকাশ করেছেন বিজ্ঞানীরা। ইউহানে যে ভাইরাসের সন্ধান পাওয়া গিয়েছিল, তার সঙ্গে কেরলের ছাত্রীর দেহে প্রাপ্ত ভাইরাসের মিল ৯৯.৯৮ শতাংশ। করোনা ভাইরাস নিয়ে এটিই দেশের প্রথম পরীক্ষা ছিল।

coronavirus

[ আরও পড়ুন: তাপমাত্রা বৃদ্ধি আর আর্দ্রতাই করোনার মারণাস্ত্র, আশাবাদী পরিবেশ বিজ্ঞানীরা ]

ইন্ডিয়ান জার্নাল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ জার্নালে প্রকাশিত ওই আর্টিকেলের নাম ‘Transmission electron microscopy imaging of SARS-CoV-2’। লিখেছেন ICMR-NIV ন্যাশনাল ইনফ্লুয়েঞ্জা সেন্ট্রাল টিম। পুণের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ভাইরোলজির ডেপুটি ডিরেক্টর এবং মাইক্রেস্কোপি ও প্যাথলজি বিভাগের প্রধান অতনু বসুও এই গবেষণার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। তাঁদের লেখা অনুযায়ী, এই ভাইরাসের একটি কণা ভালভাবে সংরক্ষণ করা হয়েছে। ভবিষ্যতে গবেষণা করতে সেটি সাহায্য করবে বলে জানিয়েছেন তিনি। 

গবেষণা অনুযায়ী মানবদেহে বর্তমানে যে করোনা ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়ছে, যাকে প্রাথমিকভাবে ইউহান করোনা ভাইরাস (CoV) নাম দেওয়া হয়েছে, তার চরিত্র অনেকটা SARS-CoV-2এর মতো। ইন্টারন্যাশনাল কমিটি অন ট্যাক্সোনমি অফ ভাইরাসের (ICTV) তাই মত। বিজ্ঞানীদের মতে, এই ভাইরাস আসলে নিউমোনিয়ারই ধরন। যদিও আরও গবেষণার পরই এ কথা জোর দিয়ে বলা সম্ভব হবে বলে জানিয়েছেন তাঁরা। সেক্ষেত্রে সংরক্ষিত ভাইরাসটিই দিশা দেখাবে বিজ্ঞানীদের।

[ আরও পড়ুন: ম্যালেরিয়ার ওষুধেই সারবে করোনা, ট্রাম্পের দাবিতেই সিলমোহর মার্কিন ওষুধ সংস্থার ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement