BREAKING NEWS

২৬ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

দেশে বাড়ছে বাঘের সংখ্যা, রেকর্ড গড়ে গিনেস বুকে নাম তুলল ব্যাঘ্রশুমারি

Published by: Sulaya Singha |    Posted: July 11, 2020 9:04 pm|    Updated: July 11, 2020 9:04 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশে ক্রমেই কমছে বাঘের সংখ্যা। দিনের পর দিন এই পরিসংখ্যানে উদ্বেগ বেড়েছে পরিবেশপ্রেমীদের। তবে বর্তমানে ছবিটা পালটে গিয়েছে। ব্যাঘ্রশুমারিতে বিশ্ব রেকর্ড গড়ে গিনেস বুকে নাম তুলল ভারত।

বিশ্বের সবচেয়ে বিস্তৃত ক্যামেরা ট্র্যাপ ওয়াইল্ডলাইফ সার্ভের জন্য বিশ্ব রেকর্ড গড়েছে সর্বভারতীয় ব্যঘ্রশুমারি ২০১৮-র সার্ভে। গত বছরই বিশ্ব ব্যাঘ্র দিবসে এই সমীক্ষার কথা ঘোষণা করা হয়েছিল। সেই সমীক্ষারই এবার স্বীকৃতি মিলল। গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডের ওয়েবসাইটে শনিবার লেখা হয়, ২০১৮-১৯-এ যে চতুর্থ সমীক্ষা হয়েছিল, তাতে একটি বিস্তীর্ণ এলাকার ছবিটা স্পষ্ট হয়েছে। বাঘের উপস্থিতি রয়েছে এমন ১৪১টি এলাকার মোট ২৬ হাজার ৮৩৮টি লোকেশনে ক্যামেরা ট্র্যাপের মাধ্যমে বাঘেদের গতিবিধির উপর নজর রাখা সম্ভব হয়েছে। এতে মোট ১ লক্ষ ২১ হাজার ৩৩৭ বর্গ কিলোমিটার এলাকায় বাঘের উপস্থিতির সমীক্ষা সফল হয়েছে। ক্যামেরা ট্র্যাপে ফ্রেমবন্দি হয়েছে বন্য জীবন্তুদের ৩ কোটি ৪৮ লক্ষ ৫৮ হাজার ৬২৩টি ছবি। যার মধ্যে ৭৬ হাজার ৬৫১টিতে দেখা গিয়েছে বাঘকে। চিতা ধরা দিয়েছে ৫১ হাজার ৭৭৭টি ছবিতে। এই ছবিগুলি পরীক্ষার পর মোট ২ হাজার ৪৬১টি বাঘের (বাঘের ছানা বাদ দিয়ে) সন্ধান মিলেছে।

[আরও পড়ুন: যথেষ্ট নয় প্রেসক্রিপশন, এবার করোনার ওষুধ কিনতে লাগবে আধার কার্ড]

এছাড়াও ভারতে বাঘের অস্তিত্ব খুঁজে বের করতে জঙ্গলের বিস্তীর্ণ এলাকায় পায়ে হেঁটে গণনা করার মতো কঠিন কাজও করা হয়েছে। যাতে অতিবাহিত হয়েছে প্রায় ৬ লক্ষ ২০ হাজার ৭৯৫ শ্রমদিবস। শেষমেশ দেখা গিয়েছে, দেশে মোট ২,৯৬৭টি বাঘ রয়েছে। যার মধ্যে ২ হাজার ৪৬১টি বাঘ ছবিতে ধরা পড়েছে।

এমন পরিসংখ্যানের স্বীকৃতি পেয়ে উচ্ছ্বসিত কেন্দ্রীয় পরিবেশ মন্ত্রী প্রকাশ জাভরেকর। বলছেন, “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির জমানাতেই চার বছরে বাঘের সংখ্যা দ্বিগুণ করতে সফল আমরা।”

[আরও পড়ুন: জলপথে জুড়ছে বাংলা-ত্রিপুরা, হলদিয়া থেকে রওনা দেবে পণ্যবাহী জাহাজ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement