১৭ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  রবিবার ৪ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

স্ত্রী-সন্তানকে নিয়ে ১০ কিলোমিটার পাহাড়ি পথে হেঁটে বাজারে যান এক আইপিএস, কেন জানেন?

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 26, 2019 4:45 pm|    Updated: September 26, 2019 4:45 pm

Meghalaya IAS Officer's Weekly Veggie Shopping Is Getting A Slow Clap

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যতদিন যাচ্ছে ততই দূষণ গ্রাস করছে আমাদের পৃথিবীকে। ক্রমশই হারিয়ে যাচ্ছে সবুজ। কমছে অক্সিজেনের আধার। এই পরিস্থিতিতে ধরিত্রীকে বাঁচানোর ডাক দিলেন মেঘালয়ের ওয়েস্ট গারো হিলসের ডেপুটি কমিশনার, আইপিএস রাম সিং। পরিবেশ বাঁচাতে তিনি যা করলেন, তা রীতিমতো নেটদুনিয়ায় ভাইরাল। প্রায় সকলেই কুর্নিশ জানাচ্ছেন ওই আধিকারিককে।

[আরও পড়ুন: ‘উষ্ণায়ন রোধে কাজ হচ্ছে না’, রাষ্ট্রসংঘে প্রথম বিশ্বের দেশগুলিকে বিঁধলেন মোদি]

এক্কেবারে পাহাড়ের চূড়ায় বাড়ি মেঘালয়ের ওয়েস্ট গারো হিলসের ডেপুটি কমিশনার, আইপিএস রাম সিংয়ের। স্ত্রী এবং ছোট্ট সন্তান ছাড়াও এখানে আর কেউ নেই তাঁর। একে বাড়ি থেকে বাজার অনেক দূর আবার তার উপর কাজের ব্যস্ততা। তাই প্রতিদিন বাজারে যাওয়া সম্ভব হয় না তাঁর। তাই তো সপ্তাহে একদিন বাজারে যান তিনি। সঙ্গে স্ত্রী এবং একমাত্র সন্তান। চড়াই উতরাই পেরিয়ে প্রতি সপ্তাহে ১০ কিলোমিটার হেঁটে বাজারে যান মেঘালয়ের ওয়েস্ট গারো হিলসের ডেপুটি কমিশনার, আইপিএস রাম সিং। তাঁর পিঠে বাঁশের তৈরি বড় ঝুড়ি। আর স্ত্রীর পিঠে কাপড় দিয়ে বেঁধে নেন সন্তানকে। বাজারে গিয়ে জৈব সার ব্যবহারে চাষ করা সবজি কেনেন রাম সিং।

Meghalaya-IAS-officer

আইপিএস রাম সিংহের দাবি,”বাঁশের তৈরি বড় ঝুড়ির ফলে প্লাস্টিক কম ব্যবহার করা সম্ভব। এছাড়াও সকলে যদি পায়ে হেঁটে যাতায়াত করেন। তবে গাড়ির কম ব্যবহার হবে। স্বাভাবিকভাবেই গাড়ির ব্যবহার কম হলে পরিবেশ দূষণও কমবে। দূষণ যেমন কমবে, তেমনই আবার হাঁটলে শরীরও ভাল থাকবে। তাই প্রতি সপ্তাহে সপরিবারে হাঁটতে হাঁটতে জৈব সার প্রয়োগে চাষ করা সবজি কিনতে যাই আমি।”

[আরও পড়ুন: কেমন হবে চাঁদে তৈরি বাড়ির নকশা, বানিয়ে ফেললেন তিন বাঙালি]

গত শনিবার রাম সিং তাঁর ফেসবুক প্রোফাইলে একটি ছবি পোস্ট করেন। এর আগে ১৭ আগস্ট একটি ছবি পোস্ট করেন। সেখানে পিঠে বাঁশের ঝুড়ি নিয়ে হাঁটতে হাঁটতে সপরিবারে সবজি কিনতে যেতে দেখা যায় তাঁকে।  রাম সিংয়ের ছবি ইতিমধ্যেই কয়েক হাজার লাইক পেয়েছে। সেই সঙ্গে প্রচুর মানুষ তাঁর এই উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন। পরিবেশ রক্ষার কথা ভেবে  আরও কয়েকজন আইপিএস অফিসার এবং স্থানীয় মানুষ একই পদ্ধতি অবলম্বন করছেন।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে