BREAKING NEWS

১৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২ জুন ২০২০ 

Advertisement

গাছ বাঁচানোর জালই মরণফাঁদ, বাগানের ধারালো নেটে মৃত্যু হনুমান শাবকের

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: May 23, 2020 10:04 pm|    Updated: May 23, 2020 10:04 pm

An Images

সৌরভ মাজি, বর্ধমান: বাড়ির বাগান বাঁচাতে ধারালো জাল লাগিয়েছিলেন মালিক। বর্ধমান শহরের মালঞ্চপল্লির এক বাড়ির সেই জালে আটকে মর্মান্তিক মৃত্যু হল এক হনুমান শাবকের। আহত আরও দুই শাবক। তাদের বাঁচাতে মা হনুমানের চেষ্টা দেখে চোখের জল সামলাতে পারলেন না স্থানীয় মানুষজন। বিশেষত বাড়ির মালিক। তখনই তিনি জালটি খুলে ফেলেন।

বাড়ির মালিকের নাম তারক পাল। বাগানের জামরুল গাছ বাঁচাতে তার চারপাশে জাল দিয়ে ঘিরে রেখেছিলেন। সেই জালেই ঘটে গেল মারাত্মক বিপর্যয়। মায়ের সঙ্গে বাগানের দিকে এসেছিল তিনটি হনুমান শাবক। শৈশবের দুরন্ত উদ্যমে খেলাধুলো করতে গিয়ে জালের কাছাকাছি এসেই বিপত্তি। জাল ছিঁড়ে রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পড়ে গেল এক শাবক। তখনও বাকিরা বেঁচে, গুরুতর জখম। মা সেই দুই শাবককে আঁকড়ে মৃত সন্তানকে উদ্ধারের প্রাণপণ চেষ্টা করছে। শনিবার দুপুরে এই দৃশ্য মালঞ্চপল্লির বাসিন্দাদের হৃদয়ে বইয়ে দিল গভীর বেদনার স্রোত।

[আরও পড়ুন: শতাব্দীপ্রাচীন বটগাছেরও শিকড়ে টান দিল শক্তিশালী আমফান, তছনছ বোটানিক্যাল গার্ডেন]

প্রথমে স্থানীয় পশুপ্রেমী সংগঠনের সদস্যরা উদ্ধার করে তিনটি শাবককে। পরে এই ঘটনার খবর পেয়ে বনদপ্তরের কর্মীরা যান মালঞ্চপল্লিতে। পশুপ্রেমী সংগঠনের সদস্য অভিজিৎ মুখোপাধ্যায় বলেন, ”ঘটনায় আমরা মর্মাহত।” এই ঘটনার পর খুবই অনুতপ্ত হয়ে পড়েন বাগান বাড়ির মালিক তারক পাল। হনুমান শাবকদের এমন বিপদে পড়তে দেখে তিনি জামরুল গাছের পাশ থেকে খুলে দিয়েছেন ওই নেট। তবে এই ঘটনায় বন্যপ্রাণ সংরক্ষণের আইনের কোপে পড়তে পারেন তারক পাল। তাঁর বিরুদ্ধে অনিচ্ছাকৃতভাবে বন্যপ্রাণ খুনে অভিযোগ দায়ের হতে পারে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement