১ ভাদ্র  ১৪২৬  সোমবার ১৯ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১ ভাদ্র  ১৪২৬  সোমবার ১৯ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: নানান গাছগাছালি ঘেরা নার্সারি। সকলের বিনোদনে সেখানে থাকবে পার্ক। এবং সেই নার্সারি–পার্কের মধ্যেই তুলে ধরা হবে বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পের খতিয়ান। রাজ্য সরকারের সমস্ত জনকল্যাণমুখী প্রকল্পকে সাধারণ মানুষের মনে গেঁথে দিতে ‘আমার গ্রাম, আমার বাগান ও জনচেতনা কেন্দ্র’ তৈরি করছে পুরুলিয়া জেলা প্রশাসন। আর এই কাজের দেখভালের দায়িত্ব স্বনির্ভর দলের হাতেই সঁপে দেওয়ার চিন্তা–ভাবনা শুরু করেছে কর্তারা।

[ আরও পড়ুন: ১৫ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ না পেয়ে কিশোরীকে খুন, আসানসোলে উদ্ধার অর্ধনগ্ন দেহ]

জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর, ১৭০টি গ্রাম পঞ্চায়েতের সদরে এই কেন্দ্র গড়ে তোলা হবে। প্রথম ধাপে জেলার কুড়িটি ব্লকে এই কেন্দ্র তৈরি করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই একাধিক ব্লক জমি দেখে এই প্রকল্পের রূপরেখা চূড়ান্ত করা হয়েছে। চলতি বর্ষাকে সামনে রেখেই নার্সারির কাজ শুরু করে দিতে চাইছে ব্লক প্রশাসন। মহাত্মা গান্ধী জাতীয় গ্রামীণ কর্মসংস্থান কর্মসূচি বা একশো দিনের কাজের প্রকল্প থেকে এই কাজ হাতে নেওয়া হয়েছে। ফলে এই কেন্দ্রগুলি তৈরিতে এলাকার মানুষজন কাজ পাবেন। একই সঙ্গে প্রাকৃতিক সম্পদও তৈরি হবে। পুরুলিয়ার জেলাশাসক রাহুল মজুমদারের কথায়, “প্রত্যেকটি ব্লকে বা গ্রাম পঞ্চায়েতে প্রশাসনের একটা করে নার্সারি খুবই দরকার। তাছাড়া গ্রামে একটা পার্ক থাকলে, সেখানে মানুষজন শান্তিতে কিছুক্ষণ সময় কাটাতে পারবেন। তাই আমরা এই প্রকল্পের মাধ্যমে সেখানেই সরকারের সমস্ত কাজকে তুলে ধরব। যাতে ওই নার্সারি–পার্কে একেবারে সাধারণ ভাবে এসেই সরকারের সমস্ত প্রকল্পের সম্বন্ধে বিস্তারিত ভাবে জানা যায়।”

[ আরও পড়ুন: মাঝরাতে বাড়িতে আগুন, পুড়ে মৃত্যু একই পরিবারের তিনজনের ]

পুরুলিয়া জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, সরকারের সমস্ত প্রকল্পকে বোর্ডে ধরে, তা সাধারণ মানুষের কাছে তুলে ধরার মত জায়গা গ্রাম পঞ্চায়েত বা ব্লক অফিসে নেই। তাছাড়া সেখানে থাকলেও ব্যস্ত সময়ে মানুষজন সেদিকে নজর দেয় না। ফলে সরকার আম জনতার জন্য কি করছে তা সামগ্রিকভাবে জানাতে পারছে না একাংশ। একজন সাধারণ মানুষও কীভাবে সরকারের কাছ থেকে বিভিন্ন প্রকল্পের সুবিধা পাবেন, তা অনেকাংশেই অজানা থেকে যাচ্ছে। তাই ‘আমার গ্রাম, আমার বাগান’ করে সমস্ত সরকারি প্রকল্পের সুযোগ–সুবিধার খতিয়ানকে এক ছাতার তলায়, এক নজরে সামনে আনতে চাওয়া হচ্ছে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং