১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মাঝ আকাশে আচমকা বন্ধ ইঞ্জিন, ভেঙে পড়ল SpaceX’এর পণ্যবাহী রকেট

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: February 3, 2021 6:22 pm|    Updated: February 3, 2021 6:25 pm

SpaceX rocket crashes upon landing, mission failed |SangbadPratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ডাহা ফেল! চাঁদ, মঙ্গলে ভারী পণ্যবাহী রকেট পাঠানোর জন্য কত চেষ্টাই না করছে মার্কিন বেসরকারি মহাকাশ সংস্থা স্পেস এক্স (SpaceX)। কিন্তু তাদের চেষ্টা এবার বিফলে গেল। ঠিক তীরে এসে তরী ডোবার মতো অবস্থা। প্রায় ১০০ টন ওজন বহনের ক্ষমতা সম্পন্ন রকেটটি মাঝপথেই ভেঙে পড়ল। মঙ্গলবার এই দুর্ঘটনার কথা টুইটে জানিয়েছে স্পেস এক্স।

পণ্যবাহী রকেট মহাকাশে পাঠানো স্পেস এক্সের খুব নতুন প্রকল্প নয়। এর আগে কয়েকটি মিশন সফলও হয়েছে। এবারও প্রায় ১৬ তলা বাড়ির সমান উচ্চতার SN9 রকেটটি (Rocket) উৎক্ষেপণ করা হয়েছিল টেক্সাসের বোকাচিকা থেকে। নাসা সোশ্যাল মিডিয়ায় তার লাইভস্ট্রিমিং করে। উৎক্ষেপণের পর মাঝআকাশে গিয়ে আচমকাই রকেটের ইঞ্জিন বন্ধ হয়ে যায়। তা ফের চালু করার চেষ্টাও চলে। কিন্তু তা ব্যর্থ হয়। এরপর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তা সটান নেমে আসে ভূপৃষ্ঠের দিকে। তাতেই তাল কেটে যায়। বিজ্ঞানীরা বুঝতে পারেন, ব্যর্থ হল এবারের মিশন।

[আরও পড়ুন: নাসার শীর্ষ পদে ভারতীয় বংশোদ্ভূত, বিডেন জমানায় সামলাবেন গুরুদায়িত্ব]

SN9 রকেটটি প্রায় ৩৯৪ ফুট লম্বা, ভারী চেহারা। প্রচলিত রকেটের ধারণা ভেঙে এখন প্রযুক্তির সঙ্গে মানিয়ে এ ধরনের রকেট তৈরি করছে স্পেস এক্সের মতো সংস্থা। আপাতত উদ্দেশ্য, আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন, চাঁদ কিংবা মঙ্গলে প্রয়োজনীয় রসদ পৌঁছে দেওয়া। পরবর্তীতে অবশ্য এলন মাস্কের সংস্থার লক্ষ্য, এ ধরনের রকেটে মহাকাশচারীদের পাঠানো। সব ঠিকঠাক থাকলে কয়েক বছরের মধ্যেই নভোশ্চরদের মহাকাশযাত্রা আরও সহজ হতে পারে, আরও ঘনঘন তাঁরা যেতে পারেন মহাশূন্যে। কিন্তু পণ্যবহনের ধাপেই ব্যর্থ হল স্পেস এক্সের এই নয়া প্রযুক্তির রকেট। ফলে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছতে সংস্থাকে এখনও যে বহুদিনের অপেক্ষা, তা বলাই বাহুল্য।

[আরও পড়ুন: লালগ্রহের মাটিতে উড়বে কপ্টার! মঙ্গল অভিযানের ইতিহাসে জুড়ল দুই বাঙালির নাম]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে