১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বুধবার ২ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

শূ্ন্যে ভেসেও ভোটদান! মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে মহাকাশ স্টেশন থেকে ভোট দিলেন নভোচর

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: October 26, 2020 3:58 pm|    Updated: October 26, 2020 3:58 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ট্রাম্প-বিডেনের লড়াই জমে উঠেছে মার্কিন মুলুকে। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের (US Presidential Election) মতো মেগা ইভেন্টের আঁচ গায়ে মাখছেন সকলেই। এমনকী মহাশূন্যে ভেসে থেকেও নির্বাচনে অংশ নেওয়া থেকে বাদ পড়ছেন না মার্কিন নভোচররা। গত সপ্তাহেই আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন (ISS) থেকে নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগ করলেন নভোচর কেট রাবিনস। টুইট করে এই খবর জানিয়েছে নাসাই।

 

ভোট দেওয়ার জন্য রীতিমতো বুথ তৈরি হয়েছিল সেখানে। শূন্যে ভেসে ভোটদানের প্রক্রিয়া কেমন হল, তাও জানালেন মহিলা নভোচারী। ৬ মাসের এক প্রকল্পে এই মুহূর্তে আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশনে রয়েছেন মার্কিন নভোচর কেট রাবিনস এবং দুই রাশিয়ান নভোচর। নভেম্বরে তাঁদের ফেরার কথা। ততদিনে আমেরিকায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের লড়াই শেষ হয়ে যাবে। তাই সময়মতো গত সপ্তাহে নিজের ভোটটা দিয়ে দিলেন কেট।

[আরও পড়ুন: প্রযুক্তি দিয়ে পরিবেশের ক্ষয়রোধ সম্ভব নয়, বরিস জনসনের ধারণা ভেঙে দিলেন বিশেষজ্ঞরা]

যদিও এই অভিজ্ঞতা তাঁর এই প্রথমবারই নয়। ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনেও এভাবেই নিজের নাগরিক অধিকার প্রয়োগ করেছিলেন এই মহিলা নভোচর। আগে এভাবে মহাশূন্য থেকে ভোট দেওয়ার কোনও আইন ছিল না আমেরিকায়। ১৯৯৭ সালে একটা বিল পাশের মধ্যে দিয়ে এই আইনটি সংশোধন করা হয়। তারপরই আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশন থেকে ভোটদান গৃহীত হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ভিনগ্রহীদের নজরে পৃথিবী, নক্ষত্র চিহ্নিত করে দাবি বৈজ্ঞানিকদের]

তবে পদ্ধতি খানিক জটিল। ভোটদানে ইচ্ছুক নভোচরদের আগে থেকে লিখিত আবেদন করতে হয়, যার আনুষ্ঠানিক নাম ফেডেরাল পোস্টকার্ড অ্যাপ্লিকেশন (FPCA)। তা গৃহীত হলে তবে ভোটদানের বিশেষ প্রক্রিয়া শুরু হয়। নির্দিষ্ট দিনক্ষণ স্থির করে দেওয়া হয় মহাকাশ স্টেশন থেকে ভোটদানের জন্য। সাধারণত নাসার নভোচররা টেক্সাস ক্যাম্পাসের বাসিন্দা হিসেবে ভোট দিয়ে থাকে। কারণ, সেখানে নাসার বেশিরভাগ বিজ্ঞানীর বাস। এছাড়া কেউ যদি আমেরিকার অন্য কোনও প্রদেশের বাসিন্দা হিসেবে সেখান থেকে ভোট দিতে চান, তার ব্যবস্থাও রয়েছে। তবে দ্বিতীয়টি কিছুটা সময়সাপেক্ষ, তুলনায় সহজ নাসার টেক্সাস ক্যাম্পাসের বাসিন্দা হয়ে ভোট দেওয়া। এনিয়ে দ্বিতীয়বার মহাশূন্যে ভেসেই ভোট দিয়েছেন কেট রাবিনস।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement