৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

গ্রুপ শীর্ষে থেকেই কোপার শেষ আটে আর্জেন্টিনা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 15, 2016 3:41 pm|    Updated: June 15, 2016 3:47 pm

An Images

আর্জেন্টিনা-৩ (লামেলা, লাভেজ্জি ও কোয়েস্তা)
বলিভিয়া-০
নিজস্ব প্রতিনিধি: ব্রাজিল, উরুগুয়ে বিদায় নেওয়ার পর গুঞ্জন শোনা গিয়েছিল৷ বলিভিয়া ম্যাচের পর মনে হয় সেই গুঞ্জন রূপান্তরিত হয়েছে সমস্বরের চিৎকারে৷ কী? এবার কোপা হতে চলেছে আর্জেন্টিনার৷
শেষ আটে আগেই পৌঁছে গিয়েছিলেন লিও মেসিরা৷ তাই এদিনের ম্যাচটা ছিল নেহাতই নিয়মরক্ষার৷ কারণ পানামাকে হারিয়ে আগেই গ্রুপ ডি থেকে নক-আউটে চলে গিয়েছিল চিলি৷ তবু আর্জেন্টিনার খেলা মানেই ফুটবলপ্রেমীদের মধ্যে উত্তেজনাটা থেকেই যায়৷ বুধবারের ম্যাচ বুঝিয়ে দিল, এই আর্জেন্টিনা সম্পর্ণ মেসি নির্ভর নয়৷ এলএম টেনকে ছাড়াও বিপক্ষদের ত্রাস হয়ে উঠতে পারে মার্টিনোর দল৷ চিলির বিরুদ্ধে মাঠে নামেননি৷ পানামার বিরুদ্ধে দ্বিতীয়ার্ধে নেমে হ্যাটট্রিক করেন তিনি৷ বুধবারও নামলেন বিরতির পর৷ ততক্ষণে আর্জেন্টিনা ৩-০ গোলে এগিয়ে আছে৷ মেসি নেমে এদিন কী করলেন? বড়জোর ছ’-সাতটা বল ধরেছেন৷ দু’টো ফ্রি-কিক নিয়েছেন৷ সেই সঙ্গে ঝামেলায় জড়িয়েছেন বলিভিয়ার ক্যাম্পোসের সঙ্গে৷
মাটিতে পড়ে গিয়ে ওঠার পর জিদান স্টাইলে মাথা দিয়ে গুঁতো মারতে যান ক্যাম্পোসকে৷ সমান টক্কর দেওয়ার চেষ্টা করেন বলিভিয়ার মিডফিল্ডারটিও৷ মেসির গায়ে ধাক্কা মারার জন্য ক্যাম্পোসকে হলুদ কার্ড দেখান রেফারি৷ এদিন আবার দলেই ছিলেন না ডি মারিয়া৷ তাতে কী হয়েছে, ততক্ষণে যা করার করে দিয়েছেন তিন গোলদাতা লামেলা, লাভেজ্জি ও কোয়েস্তা৷
তিন ম্যাচে দশ গোল৷ মেসির তিনটে বাদ দিলে দলের অনেকেই গোলের মধ্যে আছে৷ তবে এটাও ঠিক, এখনও পর্যন্ত আর্জেন্টিনার রক্ষণকে কোনও প্রমাণ দিতে হয়নি৷ বোঝাতে হয়নি তারা প্রতিপক্ষের আক্রমণকে অনায়াসে অতিক্রম করতে পারে৷ এদিন বল পজিশনে আর্জেন্টিনার যেখানে ছিল ৮৬ শতাংশ৷ সেখানে বলিভিয়ার ছিল মাত্র ১৪৷ শেষ আটে মার্টিনোর ছেলেদের মোকাবিলায় নামবে ভেনেজুয়েলা৷ এখন দেখার নক-আউটে গিয়ে কতটা নিজেদের মেলে ধরতে পারেন মেসিরা৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement